Latest News

বাঘের বাচ্চাকে দুধ খাওয়াচ্ছে ওরাংওটাং! মাতৃত্বের আশ্চর্য নিদর্শনে মুগ্ধ নেটদুনিয়া

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ‘মা হলে তবেই বুঝবে,’ মাতৃত্ব (Motherhood) সম্পর্কে এই কথাটি অনেকেই, বিশেষত মেয়েরা শুনেই থাকেন। কিন্তু সত্যিই কি গৰ্ভধারণ না করলে মা হওয়া যায় না? মাতৃত্বের অনুভূতি কি একান্তই গর্ভধারিণীর ব্যক্তিগত? সম্প্রতি এই ধারণাকেই প্রশ্নের মুখে ফেলে দিল একটি ভিডিও (Video) । এমনকি, অন্য প্রজাতির জীব হলেও যে কোনও ফারাক হয় না মা হওয়ায়, তার প্রমাণ এই ভিডিওটি। সেই ভিডিওতে একটি বাঘের বাচ্চাকে (Tiger Cub) পরম মমতায় দুধ খাইয়ে দিতে (Feeding) দেখা যাচ্ছে একটি ওরাংওটাংকে (Orangutan)।

ভিডিওটি শেয়ার করেছেন মাহিন্দ্রা গ্রুপের (Mahindra Group) চেয়ারম্যান আনন্দ মাহিন্দ্রা (Anand Mahindra)। সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রায়ই নানা দুর্দান্ত ভিডিও শেয়ার করেন তিনি। এবারেও তাঁর পোস্ট করা ভিডিওটি নেটিজেনদের মন জিতে নিয়েছে। সেই ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, একটি ওরাংওটাং পরম যত্নে ফিডিং বোতলে করে দুধ খাইয়ে দিচ্ছে বাঘের ছানাদের। শুধু তাই নয়, বাচ্চাদের রীতিমতো কোলে পিঠে করে আদর করছে সে, চুম্বনে ভরিয়ে দিচ্ছে ছোট্ট বাঘের ছানাদের। তাদের দুষ্টুমিও হাসিমুখেই মেনে নিচ্ছে সে। ভিডিওর ক্যাপশনে আনন্দ লিখেছেন, ‘কখনও কখনও আপনার মনে হয়, আপনার বাচ্চা হয়তো অন্য প্রজাতির, কিন্তু তাতেও আপনি তাদের একইরকম ভালবাসেন।’

আনন্দের শেয়ার করা এই ভিডিও মন ছুঁয়ে গেছে নেটদুনিয়ার। পোস্ট করার কিছুক্ষণের মধ্যেই ৯০ হাজার মানুষ দেখে ফেলেছেন সেটি। লাইক করে ভালোবাসা জানিয়েছেন ৫ হাজার নেটিজেন। তাঁদের মন্তব্যগুলিও দেখার মতো। একজন লিখেছেন, ‘পরস্পরের প্রতি ভালোবাসার সেরা উদাহরণ। জীবজন্তুদের থেকে অনেক কিছু শেখার আছে।’

একই সুর অন্য একজনের গলায়, ‘যে কোনওভাবেই হোক, পশুদের মধ্যে একাত্মতা এবং সমতা বেশি। মানুষকে এই ব্যাপারে এখনও অনেক শিক্ষা নিতে হবে।’

আরেকজনের দাবি, ‘মাতৃত্বের অনুভূতি তুলনাহীন। এটা সব কিছুকে ছাপিয়ে যায়। ‘

তৃণভোজী ওরাংওটাংয়ের সঙ্গে বাঘের সোহাগ দেখে মজা করেই আর এক নেটিজেনদের মন্তব্য, ‘এই ছানাগুলো বড় হয়ে কলা খাবে আর ভেগান হবে।’

ঘটনাটি কোথাকার, তা যদিও জানা যায়নি। তবে নেটিজেনদের ধারণা, এটি কোনও চিড়িয়াখানার ভিডিও।

দিব্যি খেয়ে ফেলা যায় এই সিন্দুক, তাতেই থরে থরে লুকোনো ‘সোনার বার!’ ব্যাপারটা কী!

You might also like