ভারতকে ‘নোংরা’ বলেছিলেন ট্রাম্প, ‘বন্ধুকে অপমান’ করার অভিযোগ তুলে তোপ জো বিডেনের

১,০২৬

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

দ্য ওয়াল ব্যুরো: বিশ্বের জলবায়ু প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে ভারত, চিন, রাশিয়াকে দূষিত বলে মন্তব্য করেছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। সেই কথার প্রেক্ষিতে ট্রাম্পকে বিঁধলেন আসন্ন নির্বাচনে মার্কিন প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী জো বিডেন। তাঁর কথায়, “বন্ধুদের সম্পর্কে কীভাবে কথা বলতে হয়, তা জানেন না ট্রাম্প।”

শুধু জলবায়ু প্রসঙ্গে ভারতের বাতাসে নোংরা ভেসে বেড়ানোর কথাই নয়। সম্প্রতি অভিবাসীদের বিরুদ্ধে ট্রাম্পের বিপজ্জনক বক্তব্যের জেরে আমেরিকায় বসবাসকারী ভারতীয় বংশোদ্ভূত মানুষের নিরাপত্তাও বিঘ্নিত হচ্ছে। তাঁদের উপর শ্বেতাঙ্গ কট্টরপন্থীদের আক্রমণ বাড়ছে। এমনিতে ভারতকে সবসময়ই বন্ধুরাষ্ট্র বলে দাবি করে আমেরিকা। কিন্তু তার পরেও এমন মন্তব্য কী করে সম্ভব, সে প্রশ্নও তুলেছেন জো বিডেন। সেই সঙ্গে আমেরিকায় বসবাসকারী প্রায় ২০ লক্ষ ভারতীয় বংশোদ্ভূত ভোটারের কাছে তাঁকে সমর্থন চেয়ে আবেদন করেছেন ডেমোক্র‌্যাট প্রার্থী জো বিডেন।

এমনিতেই ভারতীয় বংশোদ্ভূতদের মধ্যে ডেমোক্র‌্যাটদের প্রতি সমর্থনের প্রবণতা রয়েছে বহুদিন ধরেই। সেটাকেই কাজে লাগাচ্ছেন জো বিডেন। তার উপর এবার তাঁর রানিং মেট তথা ভাইস প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী কমলা হ্যারিসও ভারতীয় বংশোদ্ভূত। তাই তাঁদের অধিকাংশ বিডেন—হ্যারিস জুটিকেই সমর্থন করবেন বলে মনে করা হচ্ছে।

এ প্রসঙ্গে একটি সংবাদমাধ্যমের কলামে জো বিডেন লিখেছেন, “আমরা, আমেরিকাবাসীরা পরস্পরের মধ্যে আশা এবং ভালবাসা পেয়েছি। এই আমেরিকাকেই আমরা ভালবাসি। চার বছর পরে আমাদের প্রচারের বিষয়টিও এটিই। ভারতীয় বংশোদ্ভূতদের অবদানের মূল্য দিই আমরা। ভারতের সঙ্গে আমেরিকার সম্পর্ক আরও দৃঢ় করতে চাই। ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছে এটা শুধুই ছবি তোলার বিষয়। আমার কাছে, তা কাজে করে দেখানোর বিষয়।”

একই সঙ্গে করোনা মহামারী মোকাবিলায় ব্যর্থতার জন্যও ট্রাম্পকে তুলোধোনা করেন বিডেন। তাঁর কটাক্ষ, “ট্রাম্প একদন অবৈজ্ঞানিক মানুষ। তাঁর অবহেলার জন্যই লক্ষ লক্ষ আমেরিকান মারা গিয়েছেন। জীবন ও জীবিকা ধ্বংস হয়েছে।”

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More