বুধবার, মার্চ ২০

বিখ্যাত হওয়ার লোভ! ফটোশপে সেলেবদের সঙ্গে নিজের ছবি জুড়লেন যুবক, দেখে নিন

দ্য ওয়াল ব্যুরো: কখনও মোদীর সঙ্গে তাঁর ছবি। কোথাও আবার বলিউড তারকাদের পার্টিতে জ্বল জ্বল করছে তাঁর মুখ। সোশ্যাল সাইটে কয়েকদিন ধরে ঘুরছে এরমই এক অচেনা যুবকের ছবি। যাঁকে কখনও দেখা যাচ্ছে বলিউড সেলেবদের সঙ্গে, কখনও বা একেবারে নায়িকার বেডরুমে। যুবকের ছবি নিয়ে ইতিমধ্যে ফেসবুক, টুইটার, ইনস্টাগ্রামে  হইচই পড়ে গিয়েছে। খতিয়ে দেখা যায়, ফটোশপে নিজের ছবি কাট  করে সেলেবদের সঙ্গে জুড়েছেন এই যুবক। দেখে নেওয়া যাক সেই ছবিগুলি.. কয়েকদিন আগেই সোশ্যাল মিডিয়ায় এই ছবিটি ভাইরাল হয়।প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে খোশ মেজাজে আড্ডা দিয়েছিলেন বলিউড তারকারা। দিল্লিতে হওয়া সেই বিশেষ আড্ডার ছবিও বিভিন্ন সেলেবরা নিজেদের সোশ্যাল সাইটে আপলোড করেন। সেই ছবিতেই ঠিক করণ জহরের পাশেই দেখা যায় এক অচেনা যুবকের মুখ। হইচই পড়ে যায় তখনই।

দেখুন যুবকটি কেমন তৈমুরের জায়গা দখল করে নিয়েছে

বলিউড তারকা আর মাধবনের এই ছবি অনেকদিন আগেই ভাইরাল হয়েছে।নিজেকে ফিট রাখার কথা বলে ইনস্টাগ্রামে এই ছবিটি দিয়েছিলেন মাধবন। এবার সেই ছবিতেই যুবককে দেখা যাচ্ছে একেবারে খালি গায়ে।

কী কাণ্ড… দীপবীরের বিয়ে দিচ্ছেন যুবক। চলছে আড্ডাও। সবই ফটোশপেরই কামাল। 

বাদ পড়েননি বিরুষ্কাও। ছবিটা বিরাট-অনুষ্কার প্রথম করোবা চৌথের। যেখানে দেখা গেল সেই যুবককে। ছবিটি দিয়ে সোশ্যাল সাইটে তিনি লেখেন…’আমিও আমার প্রেমিকার অপেক্ষা করছি’।

করিণা কাপুরের সঙ্গে জিম করছেন যুবক। ফটোশপের নিখুঁত কাজ। আয়নায় যুবকের প্রতিফলনও ছবিতে স্পষ্ট

নিক-প্রিয়াঙ্কার সঙ্গে সাইকেল চালাচ্ছেন ওই যুবক। ফটোশপের কারসাজি তো বটেই, তবে ছবিকে  নিখুঁত করতে নিজেকে পিছনেই রাখলেন তিনি।

অভিনেত্রী রাধিকা আপ্তের বেডরুমে দেখা যাচ্ছে ফটোশপ শিল্পী সেই যুবককে। আপ্তের পাশাপাশি চিন্তায় মগ্ন তিনিও।

এখানে তাঁকে চেনা বেশ কঠিন। আলিয়া, রণবীর সিং, রণবীর কাপুর, শাহরুখের মাঝে নিজেকে রেখেছেন তিনি। তারকাদের ভিড়ে যুবকও যেন আর এক তারকা। অন্তত ছবির বার্তা সেরকমই।

যুবকের নাম এখনও জানা যায়নি।ইনস্টাগ্রামে ‘আনসিন ফ্রেন্ড’ নামক অ্যাকাউন্ট থেকে তিনি এই ছবিগুলি পোস্ট করেছেন ।তাঁর ফটোশপের কাজ  প্রশংসাও কুড়িয়েছে। নেটিজেনরা মনে করছেন, সেলেব হতে সেলেবদের মাঝে নিজেকে রাখতে চাইছেন এই যুবক। যিনি আপাতত সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রায় প্রত্যেকের নজরে এসেছেন।

Shares

Comments are closed.