বুধবার, মার্চ ২০

ডিএম নিখিল নির্মলের বদলির অনুমোদন চেয়ে নির্বাচন কমিশনকে চিঠি রাজ্যের

দ্য ওয়াল ব্যুরো: থানায় ঢুকে যুবককে পেটাচ্ছেন আলিপুরদুয়ারের জেলাশাসক। নির্বাক দর্শক পুলিশ। রবিবারের এই ঘটনা জানতে পেরে জেলাশাসকের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নিতে দেরি করেনি নবান্ন। সোমবারই ১৬ জানুয়ারি পর্যন্ত জেলাশাসক নিখিল নির্মলকে ছুটিতে পাঠানো হয়। এবার শুধু  ছুটি নয়, নির্মলের বদলি চায় রাজ্য সরকার। তাই মঙ্গলবার জাতীয় নির্বাচন কমিশনের কাছে জেলাশাসকের বদলির অনুমতি চেয়ে চিঠি পাঠালো নবান্ন।

নির্বাচন কমিশনের তত্ত্বাবধানে এখন দেশ জুড়ে চলছে ভোটার তালিকা তৈরির কাজ। সেই কারণে, প্রত্যেক রাজ্যের সব জেলাশাসকই কমিশনের আওতায় রয়েছেন। তাই নিখিলের বদলির বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে হবে কমিশনকেই। তবে, রাজ্য চিঠি দিলেও, ভোটার তালিকা তৈরির কাজ এখন তুঙ্গে, যা চলবে ১৪ জানুয়ারি পর্যন্ত। এর মাঝে নিখিলের বদলির বিষয়টি কতটা গুরুত্ব দিয়ে কমিশন দেখবে, সেই প্রশ্ন থেকেই যাচ্ছে।  মনে করা হচ্ছে, ১৪ জানুয়ারির পরই এ বিষয়ে দৃষ্টিপাত করবে কমিশন।

The Wall Impact: যুবককে মারধরের ঘটনায় আলিপুরদুয়ারের ডিএম-কে ছুটিতে পাঠাল নবান্ন

আপাতত সোশ্যাল মিডিয়ায় যুবককে নিখিলের চড় কষানোর ভিডিও ভাইরাল। রবিবার রাতে  দ্য ওয়ালই প্রথম এই খবর প্রকাশ কর। খবর আসে,জেলাশাসকের স্ত্রীকে ফেসবুকের একটি গ্রুপে অশালীন মন্তব্য করার অভিযোগে ফালাকাটা থানার পুলিশ গ্রেফতার করে বিনোদ সরকার নামের এক যুবককে। এরপর সস্ত্রীক থানায় গিয়ে জেলাশাসক নিখিল নির্মল নির্মমভাবে পেটাতে থাকেন ওই যুবককে। বাদ যাননি তাঁর স্ত্রী নন্দিনী কৃষ্ণণও। এই ভিডিও ছড়িয়ে পড়ার পর রবিবার রাতে নন্দিনী একটি দীর্ঘ লেখা ফেসবুক পোস্টে করেন। যার সারমর্ম, যা করেছেন ঠিক করেছেন।

‘আমাকে প্রথমে গালিগালাজ করেছেন ডিএম-এর স্ত্রী’, বিস্ফোরক অভিযোগ আলিপুরদুয়ারের যুবকের

 ভিডিও ভাইরাল হতেই রাতারাতি ঝড় ওঠে সোশ্যাল মিডিয়াতেও। বেশিরভাগেরই মত,  আইনের রক্ষক হয়ে, নিজেই আইন ভেঙেছেন জেলাশাসক। সোমবার ডিভিশানাল কমিশনার বরুণ রায় মৌখিক ভাবে নিখিল নির্মলকে ছুটিতে পাঠায়। কিন্তু, রবিবার রাতেই সস্ত্রীক সরকারি বাংলো ছেড়েছেন নিখিল। এদিকে, অভিযুক্ত যুবকের জামিনও মঞ্জুর করেছে আদালত।

এই পরিস্থিতিতে, রাজ্য চাইছে নিখিল নির্মলের বদলি। ১৬ জানুয়ারি শেষ হচ্ছে জেলাশাসকের ছুটির মেয়াদ, তার আগেই যাতে বদলির অনুমোদন মেলে সেই চেষ্টাতেই নবান্ন।

আরও পড়ুন-

মারের ভিডিও ভাইরাল হতেই ‘উধাও’ আলিপুরদুয়ারের ডিএম এবং তাঁর স্ত্রী

Shares

Comments are closed.