Latest News

‘দো লড়কোঁ কি জোড়ি…’ ভোটের প্রচারে অখিলেশদের তীব্র আক্রমণ যোগীর

দ্য ওয়াল ব্যুরো : ‘ইয়ে দো লড়কোঁ কি জো জোড়ি আয়ি হ্যায় না, ইয়ে দো লড়কোঁ কি জোড়ি ২০১৪ মে ভি বনি থি, ২০১৭ মে ভি বনি থি।’ এই দু’টি ছেলে (Two Boys) ২০১৪ এবং ২০১৭ সালেও জোট বেঁধেছিল। সমাজবাদী পার্টির (Samajwadi Party) প্রধান অখিলেশ সিং যাদব (Akhilesh Singh Yadav) ও তাঁর জোটসঙ্গী জয়ন্ত চৌধুরির বিরুদ্ধে এভাবেই আক্রমণ শানালেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। বুধবার রাজ্যে ভোটের জনসভায় তিনি বলেন, ২০১৩ সালে মুজফফরনগরের দাঙ্গায় জড়িত ছিলেন অখিলেশ। সেই দাঙ্গায় কয়েকজন জাঠ নিহত হয়েছিলেন।

পরে যোগী বলেন, ২০১৭ সালে রাজ্যের মানুষ বলেছিল, অখিলেশ ও জয়ন্তের জোট সরকারে আসার যোগ্য নয়। ২০১৩ সালের দাঙ্গার প্রসঙ্গ তুলে তিনি বলেন, সেবার শচীন ও গৌরব নামে দুই জাঠ যুবক নিহত হন। তখন বিরোধী জুটির একজন ক্ষমতায় ছিলেন। তিনি রাজধানী লখনউতে দাঙ্গাবাজদের ডেকে পাঠিয়েছিলেন। তাদের সম্মান জানিয়েছিলেন। যাঁরা অভিযোগ জানিয়েছিলেন, তাঁদেরই জেলে পাঠানো হয়েছিল। দিল্লির লোকটিও দাঙ্গাবাজদের পক্ষে দাঁড়িয়েছিলেন। ‘দিল্লির লোকটি’ বলে যোগী প্রাক্তন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধীর কথা বুঝিয়েছেন।

যোগী বলেন, সেই জুটি আবার ফিরে এসেছে। কিন্তু তাদের প্যাকেজিংটা নতুন। জুটি বলতে যোগী অখিলেশ-জয়ন্ত জোটের কথা বুঝিয়েছেন।
এর আগে বিহারে ভোটের আগে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ‘ডবল যুবরাজ’-এর কথা বলেন। এক্ষেত্রে তিনি রাহুল গান্ধী ও আরজেডি-র নেতা তেজস্বী যাদবের কথা বোঝাতে চেয়েছিলেন। বিজেপি সাধারণত ‘ডবল ইঞ্জিন’-এর কথা বলে। তাদের বক্তব্য, কেন্দ্রে ও রাজ্যে যদি একই দলের সরকার থাকে তাহলে উন্নয়ন হবে ডবল ইঞ্জিনের শক্তিতে।

You might also like