Latest News

যোগী রাজ্যে টেট-প্রশ্নপত্র ফাঁস, জাতীয় সুরক্ষা আইনে মামলা, বাজেয়াপ্ত হবে দোষীদের সম্পত্তি

দ্য ওয়াল ব্যুরো: প্রশ্নপত্র (question paper) ফাঁস (leak) হওয়ায় রবিবার শুরু হওয়ার মাত্র কিছুক্ষণ আগে বাতিল হয়ে যায় উত্তরপ্রদেশ শিক্ষক যোগ্যতা নির্ধারণ পরীক্ষা (ইউপিটেট) (uptet)। গতকাল রাতেই নানা সূত্রে পাওয়া গোপন খবরের ভিত্তিতে এ ব্যাপারে নানা জায়গা থেকে ২৩ জনকে উত্তরপ্রদেশ স্পেশাল টাস্ক ফোর্স (এসটিএফ) গ্রেফতার (arrest) করে বলে জানিয়েছেন এডিজি (আইনশৃঙ্খলা) প্রশান্ত কুমার। মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ (yogi adityanath) এব্যাপারে জড়িত অপরাধীদের বিরুদ্ধে জাতীয় সুরক্ষা আইন (nsa) ও গ্যাংস্টার আইনে মামলা করা হবে বলে জানিয়েছেন। বলেছেন, প্রশ্নপত্র ফাঁস হয়েছে। আমি পরীক্ষা বাতিল করে ফাঁসের পিছনে থাকা পুরো চক্রকে গ্রেফতার করতে বলেছি। এক মাসের মধ্যে পরীক্ষার আয়োজন করতে বলা হয়েছে। কোনও প্রার্থীকেই বাড়তি ফি দিতে হবে না। অ্যাডমিট কার্ড দেখে পরীক্ষার্থীদের রাজ্য পরিবহণের  বাসে হোম টাউনে ফিরিয়ে দিতে বলা হয়েছে। হিন্দিতে ট্যুইট  করে যোগী প্রশ্নপত্র ফাঁসে দোষীদের সম্পত্তি (property) সরকার বাজেয়াপ্ত করবে (attachment) বলেও জানান  তিনি।

প্রায় ২০ লাখ পরীক্ষার্থীর আজ পরীক্ষায় বসার কথা ছিল। এডিজি বলেন, গতকাল ধৃতদের  কাছ থেকে প্রশ্নপত্রের একটি ফটোকপি জোগাড় করে সরকারের কাছে পাঠানো হয়। দেখা যায়, যে প্রশ্নপত্রে পরীক্ষা হওয়ার কথা, সেটি আর ফটোকপি একই। সঙ্গে সঙ্গে সরকার সিদ্ধান্ত নেয়, পরীক্ষা বাতিল করতে হবে। রবিবার সকাল পর্যন্ত প্রশ্নপত্র পরীক্ষা কেন্দ্রে পৌঁছয়নি বলে জানা গিয়েছে। অভিযুক্তদের কাছ থেকে  প্রশ্নপত্রের ফটোকপি ও মোবাইল ফোন বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে।

মুখ্যমন্ত্রী আরেকটি ট্যুইটে লেখেন, যারা আমাদের ছোট ছোট ভাইবোনদের ভবিষ্যত্ নিয়ে ছিনিমিনি খেলেছে, তারা পার পাবে না। শাস্তি হবেই। তোমাদের সরকার সুষ্ঠু ভাবে, স্বচ্ছতার সঙ্গে পরীক্ষা করাতে দায়বদ্ধ।

বিরোধীরা সরব হয়েছে এ ঘটনায়। সমাজবাদী পার্টি সভাপতি অখিলেশ যাদবের দাবি, বিজেপি আমলে প্রশ্নপত্র ফাঁস স্বাভাবিক ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে। কংগ্রেস সাধারণ সম্পাদক প্রিয়ঙ্কা গাঁধীরও অভিযোগ, বিজেপি জমানায় শিক্ষা ও নিয়োগে দুর্নীতি হয়েই চলেছে। প্রশ্নপত্র ফাঁস বিজেপি সরকারের পরিচয় হয়ে উঠেছে।

 

 

 

 

 

You might also like