Latest News

Wriddhiman Saha: ‘বাংলার হয়ে আর খেলব না’, সিএবি-কে জানিয়ে দিলেন ক্ষুব্ধ ঋদ্ধিমান

দ্য ওয়াল ব্যুরো: মাঠ ও মাঠের বাইরে মেজাজে রয়েছেন ঋদ্ধিমান সাহা (Wriddhiman Saha)। মঙ্গলবার তিনি বিশ্বস্তমহলে পরিষ্কার জানিয়ে দিয়েছেন, বাংলার হয়ে তিনি আর খেলতে চান না।

ঋদ্ধির রাগের কারণ হল তাঁকে না জানিয়ে বাংলা দলে নাম রাখা হয়েছে। এই নিয়ে রীতিমতো ক্ষুব্ধ বাংলার নামী তারকা। তিনি জানিয়েছেন, আমাকে রঞ্জির দলে রাখা হয়েছে, অথচ আমাকে জানানো হল না। পাশাপাশি তাঁকে অতীতে অপমান করা হয়েছে, এই কারণও তিনি দেখিয়েছেন।

Footballer Zomato Boy: ইস্ট-মোহনের অমিত এখন জোম্যাটো বয়, বুটে বাঁধা স্বপ্ন, পিঠে সংসার

একটা সময় সিএবি কর্তাদের ওপর ক্ষুব্ধ হয়ে বাংলা ছাড়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন অশোক দিন্দা। এবার সেই পথে খানিকটা হাঁটলেন ঋদ্ধিও। তিনিও বাংলা ছাড়ার কথা পরিষ্কার জানিয়ে দিয়েছেন।

সোমবার রাতে রনজি নক আউটের জন্য দল বাছতে বসেছিলেন বাংলার নির্বাচকরা। সেই দল নির্বাচনী বৈঠকে হাজির ছিলেন সিএবি প্রেসিডেন্ট অভিষেক ডালমিয়া, সচিব স্নেহাশিস গঙ্গোপাধ্যায়, যুগ্ম সচিব দেবব্রত দাস, কোচ অরুণ লাল, অধিনায়ক অভিমন্যু ঈশ্বরণ। দীর্ঘ ঘন্টা দুয়েকের বৈঠকের পর ২২ জনের দল বেছে নেওয়া হয়। ঋদ্ধিমান সাহার সঙ্গে মহম্মদ সামিকেও রঞ্জি দলে রাখা হয়েছে।

রাতেই ঋদ্ধিমান কথা বলার চেষ্টা করেন সিএবি প্রেসিডেন্টের সঙ্গে, কিন্তু যোগাযোগ করতে পারেননি। আজ মঙ্গলবার দুপুরে অভিষেকের সঙ্গে দীর্ঘক্ষণ কথা হয় ঋদ্ধির। তখন তিনি সিএবি যুগ্ম সচিব দেবব্রত দাসের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দেন।

রঞ্জি গ্রুপ লিগ থেকে সরে দাঁড়ানোয় ঋদ্ধির দায়বদ্ধতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন দেবব্রত দাস। এতে দারুণ অপমানিত বোধ করেন ঋদ্ধি। তিনি ঘনিষ্ঠমহলে জানিয়েছেন, দেবব্রত দাস যদি প্রকাশ্যে ক্ষমা না চান তাহলে তিনি আর কোনও দিন বাংলার হয়ে খেলবেন না। সেই কথা তিনি সিএবি প্রেসিডেন্টকে নাকি জানিয়েও দিয়েছেন।  

You might also like