Latest News

পাণ্ডুয়ায় স্বামী-মেয়েকে বঁটিতে কোপালেন গৃহবধূ! পুলিশের সামনেও নৃশংস তাণ্ডব

দ্য ওয়াল ব্যুরো: স্বামী ও মেয়েকে বঁটি দিয়ে ভয়াবহ কোপালেন গৃহবধূ (wife)! দু’জনেই আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি। বৃহস্পতিবার রাতে পাণ্ডুয়ার এই ঘটনায় আতঙ্কে সিঁটিয়ে গেছেন এলাকাবাসী।

পুলিশ জানিয়েছে, পারিবারিক অশান্তির জেরেই এমনটা ঘটিয়েছেন অভিযুক্ত তন্দ্রা ঘোষ। তাঁর স্বামী সুবিকাশ ঘোষ, বয়স ৬৫ এবং মেয়ে সুলগ্না। মেয়ের বয়স ২৪।

নামী কলেজের অধ্যাপক ছেলে-বউকে খুন করে আত্মঘাতী

বাড়িতে তুমুল অশান্তি শুরু হওয়ার পরে রুদ্রমূর্তি ধারণ করেন ৫৫ বছরের তন্দ্রা। তাই বলে তিনি যে ওভাবে বঁটি দিয়ে কোপাবেন, তা কল্পনারও বাইরে। সুবিকাশের ভাই লক্ষ্মীকান্ত ঘোষ দাবি করেছেন বৌদির মানসিক সমস্যা হয়েছে। অসংলগ্ন কথা বলছেন তিনি।

পাণ্ডুয়ার মুলটি গ্রামের খন্যান হস্টেল পাড়া এলাকায় সুবিকাশদের বাড়ি থেকে প্রবল চিৎকার চেঁচামেচি শুনে পাণ্ডুয়া থানায় খবর দেন প্রতিবেশীরাই। পুলিশ এসে পৌঁছনোর পরেও মেয়েকে কুপিয়েই যাচ্ছিলেন মা। মেয়ের জামাকাপড় ছিঁড়ে তাকে প্রায় বিবস্ত্র করে ফেলেছিলেন। নিজেও নগ্ন ছিলেন।

পুলিশ এসে তিন জনকেই রক্তাক্ত ও নগ্ন অবস্থায় উদ্ধার করে।গুরুতর আহত হয়েছেন সুবিকাশ ঘোষ ও সুলগ্না ঘোষ। প্রথমে পাণ্ডুয়া গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পরে তাঁদের পাঠানো হয় চুঁচুড়া ইমামবাড়া সদর হাসপাতালে। সেখানেই চলছে চিকিৎসা।

পড়ুন দ্য ওয়ালের সাহিত্য পত্রিকা ‘সুখপাঠ’

You might also like