Latest News

‘সব ভোট জোড়া ফুলে,’ জাগো বাংলার শিরোনাম কীসের ইঙ্গিত? প্রশ্ন বিরোধীদের

দ্য ওয়াল ব্যুরো: কলকাতা পুরসভার ভোট শুরু হয়ে গিয়েছে। এখনও পর্যন্ত বড় ধরনের কোনও গোলমালের খবর নেই। তবে ছোটখাটো বিক্ষিপ্ত অশান্তির ঘটনা আছে। বুথ ঘিরে জটলা, ধাক্কাধাক্কি, হুঁশিয়ারি, পুলিশকে চমকানোর মত বিক্ষিপ্ত বেশ কিছু ঘটনা ঘটেছে।

বিরোধীদের একাংশের অভিযোগ, কিছু জায়গায় বুথমুখি মানুষকে বলা হচ্ছে, ‘সব ভোট জোড়া ফুলে’। জানা গিয়েছে, তৃণমূলের দলীয় মুখপাত্র ‘জাগো বাংলা’র আজকের শিরোনাম এটি। তাতে বলা হয়েছে, পুর ভোটের প্রচারে তৃণমূল যে বিপুল সাড়া পেয়েছে তা অভাবনীয়। দলের সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যাযয়ের দুটি পদযাত্রায় বিপুল লোক সমাগম হয়। এছাড়া তৃণমূলের প্রার্থীরা ঘরে ঘরে গিয়েছেন। সদ্যসমাপ্ত বিধানসভা নির্বাচনে তৃণমূলের বিপুল সাফল্যও তৃণমূল প্রার্থীদের প্রচারে বাড়তি উৎসবের কারণ। আর কোনও বিরোধী দল এতটা উৎসাহ উদ্দীপনা নিয়ে ভোটে প্রচার চালায়নি। যা থেকে জাগো বাংলা লিখেছে, প্রত্যাশা করাই যায় ‘সব ভোট জোড়া ফুলে’।

 

দলীয় মুখপত্রের এই প্রত্যাশা জাগানো শিরোনামই আজ তৃণমূলের অনেক কর্মীর মুখে মুখে। বিরোধীদের কথায়, তৃণমূলের এই বক্তব্য আসলে মানুষকে খানিক সন্ত্রস্ত রাখার চেষ্টা। অনেক জায়গায় বুথমুখি মানুষের উদ্দেশে শিরোনামই শোনানো হচ্ছে।

বিরোধীদের আরও বক্তব্য, সব ভোট জোড়া ফুলে কথাটি অগণতান্ত্রিক। ভোটের ধারণার বিপরীত। একমাত্র হিংসা, সন্ত্রাস, ভীত-সন্ত্রস্ত পরিবেশে এই বাসনা পূর্ন হওয়া সম্ভব। এটি নির্বাচনী বিধিভঙ্গেরও শামিল।

তৃণমূলের জন্মের গোড়ায় লোকসভা নির্বাচনে বিজেপির সঙ্গে বোঝাপড়া করে ভোটে লড়াইয়ের সময় জনপ্রিয় হয়েছিল ‘চুপচাপ ফুলে ছাপ’ স্লোগানটি। অন্যদিকে, বামেদের স্লোগান ছিল, ‘বিষবৃক্ষের দুটি ফুল, বিজেপি ও তৃণমূল’। পরবর্তীকালে দুই শিবিরই আর ফুল নিয়ে স্লোগান দুটি ব্যবহার করেনি।

You might also like