Latest News

নতুন স্লোগান মোদীর, লালকেল্লা থেকে কী বললেন প্রধানমন্ত্রী

দ্য ওয়াল ব্যুরো: শব্দ বেঁধে নতুন স্লোগান তৈরিতে তিনি অদ্বিতীয়। ভোট হোক বা সরকারি কর্মসূচি– নতুন নতুন স্লোগান হাজির করায় তাঁর স্ট্রাইক রেটও দারুণ। সেই তিনি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র দামোদরদাস মোদী রবিবাসরীয় সকালে স্বাধীনতার ৭৫বর্ষ পূর্তি উপলক্ষ্যে লালকেল্লা থেকে যে বক্তৃতা করেছেন সেখানেও নতুন দুটি স্লোগান দিয়েছেন।

এদিন প্রধানমন্ত্রী বলেন, “আমাদের নতুন সংকল্প নিয়ে চলতে হবে। পরিশ্রম আর পরাক্রমই হবে মন্ত্র। স্বপ্নের ভারত হবে সব দিক থেকে দুনিয়ার সেরা।” স্বাধীনতার শতবর্ষে ভারত কেমন হবে তা এদিন তুলে ধরতে চান প্রধানমন্ত্রী। সেই সূত্রেই পরিশ্রম আর পরাক্রমের কথা উল্লেখ করেছেন তিনি।

এদিন প্রধানমন্ত্রী বলেন, “আমি ভবিষ্যৎদ্রষ্টা নই। কর্মের ফলে বিশ্বাস করি। আমার বিশ্বাস রয়েছে দেশের মহিলা ও যুব সমাজের প্রতি। স্বাধীনতার শতবর্ষে যিনিই প্রধানমন্ত্রী হোন, তিনি যে ভাষণ দেবেন তা হবে আজকে যা বলা হচ্ছে তা বাস্তবায়নের বক্তৃতা। এই আমার বিশ্বাস।”

সবকা সাথ সবকা বিকাশ ও সবকা বিশ্বাস মোদীর পুরনো স্লোগান। কিন্তু তাতেও এদিন নয়া সংযোজন এনেছেন প্রধানমন্ত্রী। তাঁর কথায়, “এতদিন সবকা সাথ সবকা বিকাশ ও সবকা সাথ সবকা বিশ্বাস মন্ত্রে চলছিলাম। এবার থেকে সবকা প্রয়াসও জরুরি।” যার অর্থ, দেশের সার্বিক বিকাশে প্রতিটি দেশবাসীর প্রয়াসও যে গুরুত্বপূর্ণ তা বোঝাতে চেয়েছেন তিনি।

বিকাশের অভিমুখ কী হবে তাও এদিন স্পষ্ট করেছেন মোদী। তিনি বলেন, “দেশের ১১০টি পিছিয়ে পড়া জেলায় নতুন করে পরিকাঠামো গড়ে তোলা হচ্ছে। যার মধ্যে অধিকাংশ আদিবাসী অধ্যুষিত এলাকা। দেশের প্রতিটি কোণায় বিকাশের আলো পৌঁছে দিয়ে গ্রাম-শহরের ফারাক ঘোচানোই তাঁর লক্ষ্য বলে উল্লেখ করেছেন মোদী।

রাতারাতি সবকিছু বদলে যাবে না বলেও এদিনের বক্তৃতায় উল্লেখ করেন মোদী। তাঁর কথায়, “দীর্ঘদিনের অব্যবস্থা একদিনে যাবে না। কিন্তু তার যাতে অবসান হয় সেই কাজ করে যেতে হবে। দেশের উত্‍পাদনকারী সংস্থাগুলিকে দায়িত্ব পালন করতে হবে। যাতে সকলে মাথা উঁচু করে বলতে পারেন মেড ইন ইন্ডিয়া।”

You might also like