Latest News

গাড়ি আমদানি করে যদি লাভ হয়, তবেই ভারতে কারখানা গড়ব, জানালেন টেসলার কর্ণধার

দ্য ওয়াল ব্যুরো : ভারতে গাড়ির কারখানা তৈরির জন্য নির্দিষ্ট শর্ত দিলেন টেসলা কোম্পানির চিফ এক্সিকিউটিভ ইলোন মাস্ক। ভারতের মন্ত্রীদের তিনি জানিয়েছেন, এদেশে তিনি প্রথমে টেসলার গাড়ি আমদানি করতে চান। তাতে যদি লাভ হয়, তবেই বেঙ্গালুরুর কাছে গাড়ির কারখানা করবেন। ভারতে গাড়ি আমদানির ক্ষেত্রে বিরাট অঙ্কের শুল্ক ছাড় চেয়েছেন টেসলা। বিদ্যুৎচালিত গাড়ি নির্মাতা টেসলাকে শুল্ক ছাড় দেওয়া মোদী সরকারের নীতির বিরোধী বলে পর্যবেক্ষকদের ধারণা। কারণ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী চান বিদেশি পণ্যের ওপরে বড় অঙ্কের আমদানিশুল্ক বসানো হোক। তাতে দেশীয় শিল্প লাভবান হবে।

ইলোন মাস্ক বলেন, “আমরা ভারতে গাড়ি আমদানি করতে চাই। কিন্তু এদেশের আমদানিশুল্ক যে কোনও বড় দেশের তুলনায় যথেষ্ট বেশি।” তবে টেসলার কর্ণধারের আশা, তাঁদের জন্য সাময়িকভাবে শুল্ক ছাড় দিতে পারে ভারত। টেসলা বাদে অন্যান্য লাক্সারি গাড়ির নির্মাতারাও শুল্ক ছাড়ের জন্য সরকারের কাছে আবেদন জানিয়েছে। তবে এখনও সরকার রাজি হয়নি। তাছাড়া দেশীয় গাড়ি নির্মাতারাও বিদেশি গাড়ির ওপরে আমদানি শুল্ক কমানোর ব্যাপারে জোর আপত্তি জানিয়েছে।

চলতি বছরেই ভারতে টেসলার গাড়ি বিক্রি শুরু হওয়ার কথা। এদেশের একাধিক মন্ত্রী ও নীতি আয়োগকে চিঠি দিয়ে ওই সংস্থা বলেছে, বিদ্যুৎচালিত গাড়ির ওপরে ফেডারেল ট্যাক্স ৪০ শতাংশ কমিয়ে দেওয়া উচিত। বর্তমানে ৪০ হাজার ডলারের কম মূল্যের গাড়ির ওপরে ৬০ শতাংশ আমদানিশুল্ক দিতে হয়। তার বেশি দামের গাড়ির ওপরে শুল্ক নেওয়া হয় ১০০ শতাংশ। টেসলার চিঠিতে বলা হয়েছে, বিদ্যুৎচালিত গাড়ির ওপরে কম আমদানিশুল্ক নিলে বহু লোক ওই ধরনের গাড়ি কিনতে উৎসাহ দেখাবেন। বিদ্যুৎচালিত গাড়ির চাহিদা বাড়লে এদেশে তার কারখানা করতেও আগ্রহ দেখাবেন অনেক শিল্পপতি।  

টেসলার মার্কিন শাখার ওয়েবসাইটে বলা হয়েছে, তার মডেল থ্রি স্ট্যানডার্ড রেঞ্জ প্লাসের মূল্য ৪০ হাজার ডলারের কম। এছাড়া সব মডেলেরই দাম ৪০ হাজার ডলারের বেশি।


ভারতে বিদ্যুৎচালিত গাড়ির চাহিদা এখনও খুবই কম। প্রথমত ওই ধরনের গাড়ির দাম খুব বেশি। দ্বিতীয়ত গাড়ির ব্যাটারি চার্জ করার পরিকাঠামোও এদেশে বিশেষ নেই। গতবছর ভারতে ২৪ লক্ষ গাড়ি বিক্রি হয়েছিল। তার মধ্যে মাত্র ৫ হাজার গাড়ি ছিল বিদ্যুৎচালিত। তাদের দাম ২৮ হাজার ডলারের নীচে। ডেইমলার মার্সিডিজ বেঞ্জ গতবছর ভারতে যে লাক্সারি কার বিক্রি করেছে, তার দাম ১ লক্ষ ৩৬ হাজার ডলার। সম্প্রতি অডি এদেশে বৈদ্যুতিক এসইউভি বিক্রি শুরু করেছে। তার দাম ১ লক্ষ ৩৩ হাজার ডলার। 

You might also like