Latest News

মুসলিমদের মারতে বলে পুলিশের সঙ্গে আড্ডা! আবার ভাইরাল হরিদ্বারের সাধুদের ভিডিও

দ্য ওয়াল ব্যুরোঃ ভারতবর্ষকে হিন্দুরাষ্ট্র করে তোলার লক্ষ্যে মুসলিমদের হত্যার ডাক দিয়েছিলেন তাঁরা। সকলেই সাধু-সন্ত। হরিদ্বারের সেই সাধুদের এবার দেখা গেল এক পুলিশ পফিসারের সঙ্গে। রীতিমতো হেসে খেলে কথা বলছেন সকলে। বলছেন, ‘পুলিশ তাঁদের সঙ্গেই আছে’।

দিন কয়েক আগেই হরিদ্বারের একদল সাধুর একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছিল। সেখানে দেখা গিয়েছিল মুসলিমদের বিরুদ্ধে গণহত্যার ডাক দিচ্ছেন তাঁরা। বলছেন, মোবাইল না কিনে আগ্নেয়াস্ত্র কেনা উচিত। এখন থেকেই এদেশের মুসলিমদের সঙ্গে যুদ্ধের প্রস্তুতি শুরু করা উচিত।

সেই সাধুদের আরও একটি ভিডিও ভাওরাল হয়েছে। সেখানে তাঁদের সঙ্গে দেখা গেছে এক পুলিশ অফিসারকেও। সূত্রের খবর, হরিদ্বারের সেই সাধুদের মধ্যে থেকে পাঁচ জন গতকাল হরিদ্বার থানায় গিয়েছিলেন এফআইআর দায়ের করতে। তাঁদের অভিযোগ কিছু মৌলানা মিলে হিন্দুদের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছে। তাঁদের শাস্তি দিতে হবে। যদিও এমন কোনও এফআইআর নেওয়া হয়নি হরিদ্বার থানায়।

জানা গেছে ওই থানারই এক পুলিশ অফিসার রাকেশ কাঠাইতের সঙ্গে হেসে হেসে কথা বলছিলেন সাধুরা। তাঁদের মধ্যে তিনজনের নাম রয়েছে পুলিশের খাতায়। হরিদ্বারের সাধুদের ওই ভিডিও ভাইরাল হওয়ার পর উত্তরাখণ্ডের পুলিশের তরফে তাঁদের বিরুদ্ধে আক্রমণাত্মক কথা বলার অভিযোগ তুলে এফআইআর করা হয়েছিল।

নেটমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া নতুন ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে, এক সাধু ওই পুলিশ অফিসারকে দেখিয়ে বলছেন, তোমার তো সকলকে বোঝাতে হবে যে তুমি নিরপেক্ষ। তুমি একজন পাবলিক অফিসার। তোমার সবাইকে সমানভাবে দেখা উচিত। এরপরই আরেক সাধু বলে ওঠেন, এ তো আমাদের পক্ষেই রয়েছে। তারপর দেখা যায় সকলে হো হো করে সেহে উঠেছেন।

মুসলিমদের মেরে ফেলার কথা বলে লজ্জিত নন ওই সাধুরা। সংবাদমাধ্যমের কাছেই তাঁরা বলেছেন, আমরা যা বলেছি ঠিকই বলেছি। পুলিশকে ভয় পাই না। তবে তাঁদের রি আচরণ নিয়ে বিতর্কের ঝড় উঠেছে গোটা দেশেই।

You might also like