Latest News

Uttar Pradesh: যোগী রাজ্যে তরুণীকে খুন করে ঝুলিয়ে দেওয়ার অভিযোগ খোদ পুলিশের বিরুদ্ধে

দ্য ওয়াল ব্যুরো: উত্তরপ্রদেশের (Uttar Pradesh) এই গ্রামের ঘটনা ঠিক যেন প্রকাশ ঝার সিনেমার চিত্রনাট্য। বাবার বিরুদ্ধে অভিযোগ, তাঁকে না পেয়ে ছেলেকে তুলে নিয়ে লকআপে মার। পরে এসে অভিযুক্তের বড় মেয়েকে বেদম মারধর করে ঝুলিয়ে দিয়ে যায় পুলিশ। অভিযোগ এমনটাই। যেকারণে, চব্বিশ বছর বয়সী নিশা যাদব নামে ওই তরুণীর মৃত্যুর জন্য থানার এক অফিসার–সহ ক’‌য়েকজন পুলিশকর্মীর বিরুদ্ধেই মামলা করল উত্তরপ্রদেশের চান্দৌলি থানা

জানা গেছে, মৃতা নিশা যাদবের বাবা কানহাইয়া যাদবের বিরুদ্ধে একাধিক অপরাধমূলক কাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগ রয়েছে। এমনকি দাঙ্গায় মদত দেওয়ারও অভিযোগে গুন্ডাদমন আইনে মামলা রয়েছে তাঁর বিরুদ্ধে।

নিশার পরিবারের দাবি, রবিবার নিশা এবং তাঁর বোন গুঞ্জা চান্দৌলির মানরাজপুর গ্রামের বাড়িতে ছিলেন। তখন পরিবারের অন্য কোনও সদস্য সেখানে ছিলেন না। হঠাৎ পুলিশ এসে তাঁদের বাবা কানহাইয়া যাদবের খোঁজ করেন। তিনি তখন সেখানে ছিলেন না। ছোট ভাই গিয়েছিল, বড় ভাইকে থানা থেকে জামিন করাতে। ঠিক সেইসময়ই পুলিশের একটি গাড়ি আসে। তারপর তাঁদের বাড়িতে ঢুকে মারধর শুরু করে।

গুঞ্জা সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছে, তাঁর দিদিকে অন্য একটি ঘরে ঢুকিয়ে নির্মমভাবে মারধর শুরু করে পুলিশ। সঙ্গে কয়েকজন মহিলা কনস্টেবলও ছিল। বেল্ট দিয়ে বেধড়ক মারা হয়। তারপর সিলিং ফ্যানের সঙ্গে ঝুলিয়ে দেওয়া হয়। যাতে বিষয়টি আত্মহত্যা বলে মনে হয়। এরপরও পুলিশবাহিনী তাঁদের বাড়িতে আধঘণ্টা ছিল।

ঘটনায় চোন্দৌলি থানার এসএইও উদয় প্রতাপ সিং, কনস্টেবল সঞ্জয় সিং ও চারজন অজ্ঞাত মহিলা কনস্টেবলের বিরুদ্ধে ৩০৪,৪৫২ ও ৩২৩ ধারায় খুনের হত্যার মামলা দায়ের করা হয়েছে। সোমবার একটি সাংবাদিক বৈঠক করে চান্দৌলির পুলিশ সুপার অঙ্কুর আগরওয়াল একথা জানিয়েছেন।

মৃতা নিশা যাদবের ভাই বিজয় যাদবকে শনিবার ওই থানারই অভিযুক্ত অফিসার উদয় প্রতাপ সিং শনিবার সন্ধেয় তুলে নিয়ে গিয়ে রাতে মারধর করে বলে অভিযোগ। রবিরার তাঁকে জামিনে ছাড়িয়ে আনা হয়।

নিশার বাবা কানহাইয়া সংবাদমাধ্যমে দেওয়া একটি সাক্ষাৎকারে বলেন, ‘পুলিশ ২০২০ সাল থেকে আমায় হয়রান করে চলেছে। যেকারণে আমি সম্প্রতি বারাণসীতে থাকছিলাম। গতকাল যখন আমার বড় ছেলেকে পুলিশে তুলে নিয়ে যায়, তখন আমি বাড়িতে ছিলেন না। ছোট ছেলে বিশাল ভাইয়ের জামিনের জন্য চেষ্টা করছিল। তারপর বাড়ি ফিরে দেখি, সামনে বহু মানুষের জটলা। তারপর জানতে পারি, কী হয়েছে।’‌

অমিত সফরে ‘ঝঞ্ঝার’ পূর্বাভাস, সিএএ নিয়ে জবাব চেয়ে চিঠি ৯ মতুয়া বিধায়কের

You might also like