Latest News

কুপিয়ে খুন ব্লগার অভিজিৎ, অধরা দুই জঙ্গির খোঁজ দিলে মিলবে ৪০ কোটি টাকা, ঘোষণা আমেরিকার

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ৬ বছর আগে ঢাকার বইমেলা থেকে ফেরার পথে ব্লগার অভিজিৎ রায়কে নৃশংস ভাবে কুপিয়ে খুন করেছিল মৌলবাদীরা। চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে এই মামলায় রায় দিয়েছে ঢাকার আদালত। পাঁচ জনকে মৃত্যুদণ্ড এবং এক জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ঘোষণা হয়। তবে এখনও কোনও খোঁজ মেলেনি দু’জনের। এবার এই দুই জঙ্গির বিষয়ে তথ্য পেলে নগদ পাঁচ মিলিয়ন মার্কিন ডলার অর্থ পুরস্কার দেওয়া হবে বলে ঘোষণা করল আমেরিকা। ভারতীয় মুদ্রায় যার মূল্য প্রায় চল্লিশ কোটি টাকা!

গতকাল, সোমবার মার্কিন বিদেশ দফতরের ‘রিওয়ার্ড ফর জাস্টিস’ বিভাগের তরফে এই পুরস্কার ঘোষণা করা করেছে।

২০১৫ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি। অতর্কিত হামলায় লুটিয়ে পড়েছিলেন অভিজিৎ রায়। মার্কিন নাগরিক ছিলেন মুক্তমনা ব্লগের লেখক। ধর্মীয় অন্ধত্ব ও কুসংস্কারের বিরুদ্ধে দীর্ঘদিন ধরেই চলছিল তাঁর ধারালো কলম। সেটাই চক্ষুশূল হয়েছিল মৌলবাদীদের। আক্রান্ত হয়েছিলেন অভিজিতের স্ত্রী রাফিদা আহমেদও। ধারালো অস্ত্রের একের পরে এক কোপ নেমে এসেছিল তাঁদের উপর। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় অভিজতের। জখম হন রাফিদা।

এই ঘটনায় বিশ্বজুড়ে ঝড় বয়ে গেছিল নিন্দার। সারা পৃথিবীর নাগরিকদের বড় অংশ অপরাধীদের শাস্তির দাবিতে ফেটে পড়েছিলেন। অপরাধীরা চিহ্নিত হওয়ার পরে শুরু হয় মামলাও, তবে তার রায় ঘোষণা হতে হতে পেরিয়ে যায় আরও ৬টা বছর। তার পরেও অধরা দুই জঙ্গি। এবার তাদেরও খোঁজ পেতে মরিয়া আমেরিকা। সেই কারণেই এত বড় অঙ্গের নগদ পুরস্কার ঘোষণা করেছে মার্কিন বিদেশ দফতর।

জঙ্গিগোষ্ঠী আনসার আল ইসলামের সামরিক শাখার প্রধান ও বরখাস্ত হওয়া মেজর সৈয়দ জিয়াউল হক, জঙ্গিনেতা আকরাম হোসেন ওরফে আবির ওরফে আদনান-সহ পাঁচজনের ফাঁসির সাজা এই ফেব্রুয়ারি মাসেই শুনিয়েছে ঢাকার আদালত। যাবজ্জীবন সাজা ঘোষণা হয়েছে আরও এক জনের। তবে দুই প্রধান অভিযুক্ত জিয়াউল হক ও আকরাম হোসেন এখনও অধরা।

প্রসঙ্গত, জঙ্গি সংগঠন আনসার আল ইসলামের শীর্ষনেতা হাসিবুর রহমান ওরফে আজম আল গালিব কয়েক দিন আগেই ধরা পড়েছে। গ্রেফতার করা হয়েছে জঙ্গি সংগঠন ‘আনসারুল্লা বাংলা’র চার সদস্যকেও। অভিজিৎ রায়-সহ একাধিক মুক্তমনা ব্লগারের হত্যায় জড়িত এই সংগঠনগুলি।

You might also like