Latest News

গর্ভপাতের একমাত্র ক্লিনিক বন্ধ করার নির্দেশ, আদালতে খারিজ মিসিসিপির এই সংস্থার আবেদন

দ্য ওয়াল ব্যুরো: আমেরিকার (US) মিসিসিপি প্রদেশের একমাত্র যে ক্লিনিকে গর্ভপাত (Abortion Clinic) হতো, সেটিও বন্ধ (Closed) করার নির্দেশ দিল আদালত। গর্ভপাতের উপর সরকারি নিষেধাজ্ঞা বাতিল চেয়ে আদালতে আবেদন করেছিল এই ক্লিনিক, জ্যাকসন উম্যান’স হেলথ অর্গানাইজেশন। সে আবেদন খারিজ করে ক্লিনিকটিকে বন্ধ করার আদেশ দিয়েছে আদালত। আজ, বৃহস্পতিবার থেকে সব ধরনের গর্ভপাতের উপরেই নিষেধাজ্ঞা কার্যকর হবে বলে জানা গেছে।

নিষেধাজ্ঞা বাতিল চেয়ে মিসিসিপির জ্যাকসন উম্যান’স হেলথ অর্গানাইজেশন নামের ক্লিনিকের পক্ষ থেকে আদালতে আবেদন জানানো হয়েছিল।

৫০ বছর আগে আমেরিকার সুপ্রিম কোর্টের এক সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, গর্ভপাতকে সাংবিধানিক অধিকার হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়া হয়। ১৯৭৩ সালে রো বনাম ওয়েড মামলার ঐতিহাসিক রায়ে মার্কিন সুপ্রিম কোর্ট তাদের দেশের সাংবিধানিক ধারা ব্যাখ্যা করেছিল গর্ভপাতের অধিকার (Right to Abortion) নিয়ে। বলা হয়েছিল, গর্ভপাতের সিদ্ধান্ত নেওয়া এক জন মহিলার সাংবিধানিক অধিকার। সেই অধিকার দেশজুড়ে আইনসিদ্ধ থাকবে। এত বছর পরে এই সিদ্ধান্ত নতুন করে পাল্টে গর্ভপাত বন্ধের উদ্যোগ নেয় সরকার। সারা দেশ তথা বিশ্বজুড়ে এই নিয়ে প্রতিবাদ করা হয়। গর্ভপাতের অধিকারের দাবিতে বিক্ষোভ করতে রাস্তায় নামেন অনেকে।

Only Clinic Performing Abortions In US State At Heart Of Court Case Closes

এই পরিস্থিতিতে আমেরিকার অঙ্গরাজ্যগুলো স্থানীয়ভাবে গর্ভপাতের পক্ষে আইন প্রণয়ন করতে চাইছে। তবে এই উদ্যোগ নিতে গিয়ে আইনি চ্যালেঞ্জের মুখে পড়েছে তারা।

মিসিসিপির ওই ক্লিনিক আদালতে আবেদন জানিয়ে বলে, মিসিসিপির সংবিধানে ব্যক্তিস্বাধীনতার যে অধিকার দেওয়া হয়েছে, তার মধ্যে গর্ভপাতের অধিকারও অন্তর্ভুক্ত। ফলে এই ক্লিনিক বন্ধ করা যাবে না। এটিই একমাত্র সক্রিয় ক্লিনিক, বহু আপদেবিপদে মহিলাদের গর্ভপাত করানোর প্রয়োজন পড়ে এখানে।

আদালতের শুনানিতে বিচারপতি ডেবরা হালফোর্ড এই সওয়াল খারিজ করে দিয়ে রায় দেন, ‘মিসিসিপির সংবিধানে পরিষ্কার করে গর্ভপাত বিষয়ে উল্লেখ করা নেই।’ এর পরে উচ্চ আদালতে ফের আবেদন করার কথা ভাবছে ওই ক্লিনিক।

‘আমার কথা ভুল প্রমাণ করুক বিজেপি, যে কোনও থানায় অভিযোগ করুক’, চ্যালেঞ্জ ছুড়লেন অনড় মহুয়া

You might also like