Latest News

দর্জির গলা কাটতে তৈরি ছিল আরও দুজন! উদয়পুরের খুনিদের কোর্টে দেখেই হামলে পড়ল জনতা

দ্য ওয়াল ব্যুরো: রাজস্থানের উদয়পুর কাণ্ডে (Udaipur Tailor Murder) উত্তাল গোটা দেশ। দর্জির দোকানে ঢুকে কানাহাইলালকে গলা কেটে খুন করার ভিডিও ছড়িয়ে পড়তেই দেশজুড়ে শুরু হয়েছে বিক্ষোভ। এই ঘটনার তদন্তে এবার উঠে এল আর এক চাঞ্চল্যকর তথ্য। এনআইএ-এর (NIA) তদন্তকারী অফিসার জানিয়েছেন, দু’জন নয়, কানহাইয়ালালকে খুন করার জন্য মোট চারজনকে ঠিক করা হয়েছিল। যদি দু’জন ব্যর্থ হত, তাহলে বাকি দু’জন সেই কাজ করত!

জয়পুরের স্পেশাল আদালতে তোলা হয় চার অভিযুক্তকেই। রিয়াজ আখতারি (Riyaz Akhtari) এবং ঘাউস মহম্মদ (Gos Mohammad) সহ চারজনকেই ১২ জুলাই পর্যন্ত এনআইএ হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছে আদালত। তবে এদিন আদালত চত্বর উত্তাল হয়ে ওঠে। অভিযুক্তদের আদালতে আনা হলে তাদের ওপর চড়াও হয় উত্তপ্ত জনতা। যদিও এনআইএ-এর তদন্তকারী অফিসাররা দ্রুত সরিয়ে নিয়ে যান অভিযুক্তদের।

জানা গেছে, জয়পুর আদালতের বাইরে রিয়াজ আখতারি এবং ঘাউস মহম্মদের ওপর চড়াও হয় একদল জনতা। মারধর করা হয়, জামা কাপড় ছিঁড়ে দেওয়া হয় অভিযুক্তদের। তবে পুলিশ এসে উত্তপ্ত জনতার হাত থেকে তাদের বাঁচিয়ে ভ্যানে তুলে নিয়ে যায়।

গত বুধবার রিয়াজ ও ঘাউস মিলে গলা কেটে খুন করে দর্জি কানহাইয়ালালকে। সেই ঘটনার দৃশ্য ক্যামেরাবন্দি করে ইন্টারনেটেও ছড়িয়ে দেয় তারা। যা নিয়ে দেশজুড়ে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। ঘটনার তদন্তে উঠে আসছে নানা তথ্য।

আগেই জানা গিয়েছিল এই খুনের ঘটনার পেছনে পাকিস্তানের যোগের কথা। এমনকি, এই দুই অভিযুক্ত খুনের আগে নাকি আইসিসের ভিডিও দেখেছিল। এবার সেই হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় নাম জড়াল আরও দু’জনের। জানা গেল, স্ট্যান্ডবাইয়ে রাখা হয়েছিল তাদের।

উদয়পুর খুনের সমর্থনে যাবতীয় পোস্ট সরাতে হবে, নির্দেশ কেন্দ্রের

You might also like