Latest News

পথ যদি না শেষ হয়, তবে এই বাইকটি চড়লে বেশ হয়

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ষাটের দশকের গোড়ায় উত্তম-সুচিত্রার অভিনয়ে ‘এই পথ যদি না শেষ হয়’ গানটি আজও চিরসবুজ হয়ে রয়েছে। কিংবদন্তী সেই গানে উত্তম-সুচিত্রা আসলে বাইকে চড়েননি। পরিচালক অজয় কর ক্লোজ আপ শটে ম্যানিপুলেট করে শ্যুট করেছিলেন। লং শটে ব্যবহার করা হয়েছিল একাধিক ডামিকে।

এ রহস্যের কথা এখনও অনেকে জানেন না। ঠিক যেমন অনেকে এখনও জানেন না যে মোটরবাইক প্রস্তুতকারক সংস্থা টিভিএস (TVS) বাজারে এনেছে একটি নতুন মোটরবাইক। যে বাইক আপাতদর্শনে প্রেমে পড়ার মতোই। তার পর কল্পজগতে গুন গুন করতে করতে ভেসে যাওয়া—এই পথ যদি না শেষ হয়!

Image - পথ যদি না শেষ হয়, তবে এই বাইকটি চড়লে বেশ হয়

টিভিএসের নতুন বাইকটির নাম রোনিন ২০২২ (TVS Ronin 2022)। সংস্থার দাবি, রোনিন টেক্কা দেবে ইয়েজদি স্ক্র্যাম্বলার ও রয়্যাল এনফিল্ড হান্টার ৩৫০-এর সঙ্গে। ইয়েজদি ও এনফিল্ডের নতুন মডেল দুটি অবশ্য এখনও বাজারে আসেনি।
এক নজরে দেখে নেওয়া যাক কী কী ফিচার্স রয়েছে রোনিন ২০২২-এ—

মডেল ও দাম

তিনটি মডেল রয়েছে রোনিনের। বেস, বেস প্লাস এবং মিড। বেসের দাম এক লক্ষ ৪৯ হাজার টাকা। বেস প্লাসের দাম এক লক্ষ ৫৬ হাজার টাকা। মিডের বিক্রি হচ্ছে এক লক্ষ ৬৮ হাজার টাকায়।

তিনটি মডেলেই ছটি রঙ রয়েছে। বেসে থাকছে সিঙ্গল টোন ও সিঙ্গল চ্যানেল। বেস প্লাসের ক্ষেত্রে ডবল টোন ও ডবল চ্যানেল। আর মিডে রয়েছে ট্রিপল টোন সঙ্গে ডবল চ্যানেল। ডবল চ্যানেলের দুটি মডেলের ক্ষেত্রেই থাকছে এবিএস সিস্টেম। যা আগাম জানান দেবে রোদ-বৃষ্টির খবর।

ঝলমলে আলো

হেডলাইট ঝলমল করবে ডিআরএল ফিচারে। ব্রেক লাইটেও রয়েছে হাইব্রিড প্রযুক্তি। ডিজিটাল স্পিডোমিটারে রয়েছে ২৮টি ফিচার।

Image - পথ যদি না শেষ হয়, তবে এই বাইকটি চড়লে বেশ হয়

ভয়েস অ্যালার্ট

হয়তো অনেক দূরপথের যাত্রা। আপনি রোনিন চালাচ্ছেন। গুগল ম্যাপ বলছে বেশ কিছুটা যাওয়ার পর পেট্রল পাম্প পড়বে। সেই পরিস্থিতিতে একটা টেনশন থাকেই—অতদূর চলবে তো? তেলের কাটা দেখে অনেক সময়ে আন্দাজ পাওয়া যায় না। কিন্তু রোনিনের ভয়েস অ্যালার্ট আপনাকে জানিয়ে দেবে, ঠিক কতটা তেল রয়েছে গাড়ির পেটে। কত কিলোমিটার হাসতে হাসতে যেতে যেতে পারবেন আপনি।

তা ছাড়া রাস্তার বাঁক থেকে সিগন্যাল এমনকি ফোনের ব্যাটারিতে কতটা চার্জ রয়েছে, সেটাও জানান দেবে ভয়েস অ্যালার্ট। পকেটে ফোন থাকলে হ্যান্ডেলের সুইচে ছুঁয়েই তা রিসিভ করা যাবে।ইচ্ছে করলে কেটেও দেওয়া যাবে ফোন কল।

ইঞ্জিন কতটা শক্তপোক্ত?

২২৫.৯ সিঙ্গল সিলিন্ডার ইঞ্জিন রয়েছে রোনিনে। যা সর্বোচ্চ ১২০ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টা গতিবেগে ছুটতে পারে। হাতে থাকছে অ্যাসিস্ট অ্যান্ড স্লিপ ক্ল্যাচ। অয়েল কুলারের আয়তনও বিরাট। সেইসঙ্গে রয়েছে ওথ্রিসি প্রযুক্তি।

You might also like