Latest News

ফেব্রুয়ারির প্রথম ১৫ দিনে শীর্ষে উঠতে পারে কোভিডের তৃতীয় ওয়েভ, জানাল মাদ্রাজ আইআইটি

দ্য ওয়াল ব্যুরো : গত চার সপ্তাহ (Last 4 weeks) ধরে দেশ জুড়ে ব্যাপক হারে ছড়িয়েছে কোভিড (Covid)। এই পরিস্থিতিতে ‘আর নট’ (R Naught) বিশ্লেষণ করে মাদ্রাজ আইআইটি-র গবেষকরা বোঝার চেষ্টা করেছেন, আগামী দিনে কী হারে ছড়াবে অতিমহামারী। একজন আক্রান্তের থেকে গড়ে কতজন সংক্রমিত হতে পারেন, তা বোঝা যায় ‘আর নট’ থেকে। ‘আর নট’ ভ্যালু একের নীচে নামলে বোঝা যায়, অতিমহামারী শেষ হতে চলেছে। কিন্তু বর্তমানে ভারতের আর নট বিচার করে গবেষকরা বলেছেন, আগামী ১ থেকে ১৫ ফেব্রুয়ারির মধ্যে শীর্ষে পৌঁছবে কোভিড সংক্রমণ।

আইআইটি মাদ্রাজ জানিয়েছে, ২৫ ডিসেম্বর থেকে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত ভারতে আর নট ভ্যালু ছিল ২.৯। কিন্তু ১ থেকে ৬ জানুয়ারির মধ্যে সেই ভ্যালু বেড়ে দাঁড়িয়েছে চার। আইআইটি মাদ্রাজের ডিপার্টমেন্ট অব ম্যাথমেটিক্সের অধ্যাপক জয়ন্ত ঝা জানিয়েছেন, ‘আর নট’ নির্ভর করে তিনটি বিষয়ের ওপরে। প্রথমত কোনও আক্রান্ত ব্যক্তি কতজনের সংস্পর্শে আসতে পারেন। দ্বিতীয়ত বাস্তবে তিনি কতজনের সংস্পর্শে এসেছেন। তৃতীয়ত প্রতিটি সংক্রমণ ঘটতে ঠিক কত সময় লাগছে।

জয়ন্ত ঝা বলেন, “এখন কঠোরভাবে কোভিড বিধি কার্যকর করা হচ্ছে। ফলে আক্রান্ত ব্যক্তির সংস্পর্শে আসার সম্ভাবনা কমবে। ফলে আর নটও কমবে।” ২৫ ডিসেম্বরের পরবর্তী দু’সপ্তাহের আর নট বিশ্লেষণ করে গবেষকরা বলেছেন, ফেব্রুয়ারির প্রথমার্ধে সংক্রমণ হবে সবচেয়ে বেশি। কিন্তু অতিমহামারী রোধে সরকার যদি কার্যকরী ব্যবস্থা নিতে পারে, তাহলে পরিস্থিতি বদলাবে।

বুধবার কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক জানায়, দেশে কোভিডের সংক্রমণ বাড়ছে গুণোত্তর প্রগতির হারে। এই বৃদ্ধির মূলে আছে কোভিডের ওমিক্রন ভ্যারিয়ান্ট। সেকেন্ড ওয়েভ যখন শীর্ষে, তখন দেশে আর নট ছিল ১.৬৯। এখন আর নট তার চেয়ে বেশি।

জয়ন্ত ঝা জানান, কোভিডের তৃতীয় ঢেউ যখন শীর্ষে উঠবে তখন আক্রান্তের সংখ্যা দ্বিতীয় ঢেউয়ের থেকে বেশি হবে। তাঁর মতে, অপর দু’টি ওয়েভের সঙ্গে তৃতীয় ওয়েভের পার্থক্য আছে দু’টি। প্রথমত, এখন দেশের বড় সংখ্যক মানুষ ভ্যাকসিন নিয়েছেন। দ্বিতীয়ত আগের দু’টি ওয়েভের তুলনায় এখন সামাজিক দূরত্ব রাখা হচ্ছে কম। প্রথম ওয়েভের সময় সারা দেশে কঠোর কোভিড বিধি চালু হয়েছিল। কিন্তু এখন সংক্রমণ বেশি হওয়া সত্ত্বেও সেই বিধি অনেকাংশে শিথিল করা হয়েছে।

You might also like