Latest News

অসমে মৃত মইনুলের বাবা বললেন, আমরা যদি বাংলাদেশি হই…

দ্য ওয়াল ব্যুরো : বৃহস্পতিবার অসমের দরং জেলায় (Darang District) পুলিশ জবরদখলকারী উচ্ছেদ করতে গেলে দু’জনের মৃত্যু হয়। এক ভিডিও ক্লিপে দেখা যায়, লুঙ্গি ও গেঞ্জি পরা একটি লোককে গুলি করছে পুলিশ। আহত অবস্থায় সে মাটিতে পড়ে গেলে তাকে লাঠিপেটা করা হয়। পরে তার দেহের ওপরে লাফিয়ে পড়েন সরকারি ক্যামেরাম্যান। ওই ব্যক্তি মারা গিয়েছেন। শুক্রবার জানা যায়, তাঁর নাম মইনুল ইসলাম। ৩০ বছর বয়সী মইনুল ঢোলপুর গ্রামের বাসিন্দা ছিলেন।

মইনুল তিনটি শিশুসন্তানের বাবা ছিলেন। তাঁর বাড়িতে আছেন বয়স্ক বাবা-মা। তিনি সবজির চাষ করে জীবিকা অর্জন করতেন। সরকারের বক্তব্য, যে জমিতে তিনি চাষ করতেন, তা তাঁর নিজের নয়। মইনুলের বাবা এদিন বলেন, “তারা আমার ছেলেকে মেরে ফেলেছে।” তাঁর প্রশ্ন, “আমরা কি বাংলাদেশি? তাহলে আমাদের ফেরত পাঠিয়ে দিক।”

এর আগে সোমবার অসমের ঢোলপুর থেকে ৮০০ পরিবারকে উচ্ছেদ করা হয়। রাজ্যে কৃষি প্রকল্পের জন্য ৪৫০০ বিঘা জমি পুনরুদ্ধার করতে চাইছে সরকার। এদিন পুলিশ জানায়, দরং জেলায় উচ্ছেদ করতে গেলে স্থানীয় মানুষ তাদের দিকে পাথর ছোড়ে। বাধ্য হয়ে তাদের বলপ্রয়োগ করতে হয়।

পুলিশ সম্প্রতি চারটি এলাকা থেকে জবরদখলকারী উচ্ছেদ করেছে। তার মধ্যে আছে গরুখুটি এবং ঢোলপুর ১, ২ ও ৩ এলাকা। মইনুল হক মারা যান ঢোলপুর ৩ অঞ্চলে। বুধবার রাতে ওই গ্রামের বাসিন্দাদের উচ্ছেদের নোটিশ দেওয়া হয়। উচ্ছেদ অভিযান শুরু হয় বৃহস্পতিবার সকালে।

বৃহস্পতিবার পুলিশ সুপার সুকান্ত বিশ্ব শর্মা বলেন, “ন’জন পুলিশকর্মী আহত হয়েছেন। দুই সাধারণ মানুষও আহত হয়েছিলেন। এখন পরিস্থিতি স্বাভাবিক।” ঘটনাস্থলে এসপি উপস্থিত ছিলেন। তিনি বলেন, “আমরা উচ্ছেদ অভিযান শেষ করতে পারিনি। এখনকার মতো আমরা ফিরে এসেছি।” জনতার ওপরে পুলিশের গুলি চালানো নিয়ে প্রশ্ন করলে তিনি বলেন, “বিরাট এলাকা জুড়ে উচ্ছেদ অভিযান চলছিল। আমি অন্যদিকে ছিলাম। পরে খতিয়ে দেখব ঠিক কী হয়েছিল।”

অসমের ঘটনার প্রেক্ষিতে কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী টুইট করে বলেন, “আমি দৃঢ়ভাবে অসমের ভাই-বোনদের পক্ষে দাঁড়াচ্ছি। ভারতের কোনও নাগরিকেরই এই ব্যবহার প্রাপ্য নয়।” দরং-এর ঘটনার প্রতিবাদে শুক্রবার ১২ ঘণ্টার বন্‌ধের ডাক দিয়েছে অল অসম মাইনরিটি স্টুডেন্টস ইউনিয়ন। ওই সংগঠনের ছাত্ররা অসমের নানা জায়গায় বিক্ষোভ দেখিয়েছে। বিরোধী দল কংগ্রেসও শুক্রবার দরং জেলায় বিক্ষোভ দেখিয়েছে।

You might also like