Latest News

জামিলা জামিলকে ধর্ষণের হুমকি সোশ্যাল মিডিয়ায়, কৃষক আন্দোলনে সমর্থন জানিয়েছিলেন তিনি

দ্য ওয়াল ব্যুরো: গতকাল একটি ছোট্ট ইনস্টাগ্রাম পোস্টের মাধ্যমে ভয়াবহ অভিজ্ঞতার কথা শেয়ার করলেন ‘দ্য গুড প্লেস’ খ্যাত ব্রিটিশ অভিনেত্রী জামিলা জামিল। যতবার ভারতের কৃষক আন্দোলনকে নিয়ে তিনি মুখ খুলছেন, ততবারই তাঁর ইনবক্সে উপচে পড়ছে প্রাণহানির হুমকি। এমনকি ধর্ষণের হুমকি পর্যন্ত তিনি পাচ্ছেন বলে জানিয়েছেন।

জামিলা শুধু অভিনেত্রী নন, তিনি একজন নামকরা লেখিকা, মডেল এবং সমাজকর্মী। ভারতের চলতি কৃষক আন্দোলন নিয়ে শুরু থেকেই স্বাধীনভাবে মত প্রকাশ করছিলেন জামিলা। কখনও টুইটারে, তো কখনও ইনস্টাগ্রামে। যাঁরাই শুরু থেকে
কৃষকদের পাশে দাঁড়িয়েছিলেন, তাঁদেরকেও কুর্নিশ জানিয়েছিলেন জামিলা। কিন্তু বারংবার এমন হুমকি পাওয়ার পর, কিছুটা অস্বস্তিতেই ভুগছেন অভিনেত্রী।

ইনস্টাগ্রামে তিনি লিখেছেন, “গত দু’মাস ধরে আন্দোলন নিয়ে, এবং তার আগে থেকেই আমি কৃষকদের নিয়ে নিজের মত বারংবার প্রকাশ করেছি। কিন্তু ততবারই আমি প্রাণহানি এবং ধর্ষণের হুমকি পাচ্ছি। কিন্তু যতই আমার মুখ বন্ধ করে দেওয়ার জন্য ইনবক্সে হুমকি দাও, মনে রেখো আমিও মানুষ। একটা সীমা পর্যন্ত সহ্য করা যায়। তারপর নয়।”

অস্বস্তি থাকলেও, তাঁর মুখ এভাবে বন্ধ করা যাবে না। জামিলা এত সহজে দমে যাওয়ার মানুষ নন, স্পষ্ট জানিয়েছেন তিনি। তারপরেই জামিলা এও লিখেছেন, “আমি এরপরেও কৃষকদের সমর্থন করব। এবং এই আন্দোলনে যাঁরাই কৃষকদের হয়ে লড়ছেন, তাঁদের পাশে আমি আছি, থাকব।”

অন্যদিকে অস্কারজয়ী অভিনেত্রী সুজান সারানডনও আজ টুইটারে কৃষক আন্দোলনের ‘পাশে থাকার’ বার্তা দিয়েছেন। সরকারের তিনটে কৃষি আইনের বিরুদ্ধে কৃষকরা যে আন্দোলন করছেন, তাঁকে তিনি সমর্থন করছেন বলেই লিখেছেন। আবার পপ গায়িকা রিহানা, গ্রেটা থুনবার্গের টুইটকে ঘিরে দেশের মধ্যেই এক তুমুল হট্টগোলের সৃষ্টি হয়েছে।

রিহানাদের টুইটের পরেই, দেশের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে, বিদেশের হস্তক্ষেপ বরদাস্ত নয়- এমন বার্তা দিয়েছেন শচীন তেন্ডুলকার, লতা মঙ্গেশকরের মতো আইকনরা। এমনকি ‘অপপ্রচারের বিরুদ্ধে ভারত’ লিখে শচীন টুইট করায়, সেটা মুহূর্তের মধ্যে ছড়িয়ে পড়ে সোশ্যাল মিডিয়ায়। এরইমধ্যে জামিলার এমন মন্তব্য দেখে এক অংশের নেটিজেনরা এমন ঘটনার তীব্র নিন্দা করেছেন।

You might also like