Latest News

১৪ কোটির ‘সোনার বাংলা চা’ আনল লন্ডন, চুমুকে চুমুকে সোনালি প্রলেপ

দ্য ওয়াল ব্যুরো: দার্জিলিং নয়, অসমও হয়। বাংলাদেশের সিলেটে তৈরি হয়েছে বিশ্বের সবচেয়ে দামি চা। নাম, দ্য গোল্ডেন বেঙ্গল টি বা সোনার বাংলা চা। এই চায়ের প্রতি কেজির দাম শুনলে চোখ কপালে উঠবে। ১৪ কোটি টাকা খরচ করলে, তবে পাওয়া যাবে পৃথিবীর সবচেয়ে দামি চায়ের এক কেজি।

তবে এই চা এখনও বাজারে আসেনি। নতুন বছরে নতুন চমক হিসেবে চুমুক দেওয়া যাবে সোনার বাংলা চায়ের কাপে। ২০২২ সালের মে মাসে আনুষ্ঠানিকভাবে বাজারে আসবে দ্য গোল্ডেন বেঙ্গল টি। বিশ্বের অন্যতম সেরা চায়ের প্রতিষ্ঠান লন্ডন টি এক্সচেঞ্জ এই চা বাজারে আনবে।

কেন এমন নামকরণ করা হল এই চায়ের?

নির্মাতারা জানাচ্ছেন, নামকরণের পিছনে আছেন স্বয়ং রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর। তাঁর লেখা গান বাংলাদেশের জাতীয় সঙ্গীত ‘আমার সোনার বাংলা’। তা থেকেই এই চায়ের নাম রাখা হয়েছে দ্য গোল্ডেন বেঙ্গল টি।

এই চা আসলে ব্ল্যাক টি। তবে কাপের মধ্যে ঢাললে তা সোনালি রঙের দেখায়। দ্য গোল্ডেন বেঙ্গল টি-তে আক্ষরিক অর্থেই রয়েছে সোনার প্রলেপ। প্রায় সাড়ে চার বছরের প্রচেষ্টায় এই চা তৈরি হয়েছে বলে জানিয়েছে লন্ডন টি এক্সচেঞ্জ। এই চা বানানোর জন্য ৯০০ কেজি উৎপাদিত চা থেকে মাত্র ১ কেজি চা পাতা বাছাই করা হয়। তাতে দেওয়া হয় ২৪ ক্যারাট সোনার প্রলেপ। আগামী দিনে দ্য গোল্ডেন বেঙ্গল টি নোবেল জয়ীদের উপহার দেওয়ার ভাবনাও রয়েছে।

লন্ডনের ব্রিক লেনে অবস্থিত লন্ডন টি এক্সচেঞ্জের অফিসে এই চা পাওয়া যাবে। বিশ্বের ৪২টি দেশের প্রায় ৯০০ ধরনের প্রিমিয়াম চা পাতা পাওয়া যায় এই অফিসেই। রাজ পরিবারগুলিতে এখান থেকে চা পাঠানো হয়। তার মধ্যে ব্রিটেনের রাজপরিবার তো আছেই। সকলেই এখন সোনার বাংলা চায়ের অপেক্ষায় দিন গুনছেন।

You might also like