Latest News

Sujan Chakraborty: ‘তৃণমূল-বিজেপির ঘর আলাদা হতে পারে, দরজাটা এক’, অর্জুন প্রসঙ্গে বললেন সুজন

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ২০১৯ সালে লোকসভা ভোটের আগে তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে গিয়েছিলেন অর্জুন সিং। শুধু একা নয়, সদলবলে যোগ দিয়েছিলেন বিজেপিতে। কিন্তু ২০২১ সালে ভরাডুবির পর একে একে অনেকেই ফুল বদল করেছিলেন। পদ্ম ছেড়ে ঘাসফুল শিবিরে। এবার অর্জুন এলেন।

জল্পনা বেশ কয়েকদিন ধরেই চলছিল। অবশেষে সত্যিই হল। তবে অর্জুনের তৃণমূলে যোগ দেওয়াকে একেবারেই ‘ ঘর ওয়াপসি’ বলতে নারাজ সিপিএম নেতা সুজন চক্রবর্তী (Sujan Chakraborty)। তিনি বললেন, ‘সকালে বিজেপি, বিকেলে তৃণমূল।’ শুধু তাই নয়, এক প্রশ্নের জবাবে তিনি আরও বলেন, ‘ হতেও পারে পরেশ ও পার্থ বা এসএসসি নিয়ে যা হচ্ছে তা থেকেই দৃষ্টি ঘোরাতে এই যোগদান পর্ব।’

সিপিএম নেতা সুজন চক্রবর্তী আরও বলেন, ‘অর্জুন সিং তৃণমূলের বড় নেতা ছিল। কী কী অপরাধ করেছে আমার সবাই জানি। সেইসময় তিনি তৃণমূলের থেকে বিজেপিকে বেশি পছন্দ করেছিলেন, এখন আবার বিজেপির থেকে তৃণমুলকে বেশি পছন্দ করেছেন।’

এদিন সুজনবাবু (Sujan Chakraborty) বুঝিয়ে দিলেন তৃণমূল ও বিজেপি আলাদা কোনও ব্যাপার নয়। তিনি বললেন, ‘তৃণমূলেই ছিলেন, অতএব বিজেপিতে ছিলেন, আবার তৃণমূলে এলেন। এখানে ঘরওয়াপসির কোনও ব্যাপার নয়। তৃণমূল বিজেপিকে পুষ্ট করছেন। বিজেপিও তৃণমূলকে বরাবর সাহায্য করে এসেছে। তৃণমূল ও বিজেপির ঘর আলাদা হতে পারে দরজাটা এক।’

অর্জুনের দল বদলকে খুব একটা আমল দিতে রাজি নন বঙ্গ বিজেপি। পদ্ম নেতা শমীক ভট্টাচার্য বলেন, ‘অর্জুন সিং স্বেচ্ছায় বিজেপিতে এসেছিলেন, স্বেচ্ছায় চলে গেছেন। এতে বিজেপির রাজনীতিতে কোনও প্রভাব ফেলবে না।’

এর পরেই তিনি যোগ করেন, ‘ওঁর বিরুদ্ধে তৃণমূলই শতাধিক মামলা করেছিল। আর উনি নিজেও সর্বদা ক্ষমতার অলিঙ্গে থাকতে ভালবাসা মানুষ। তাই উনি চলে গেছেন আমাদের কিছু যায় আসে না।’

পরেশ, পার্থ, এসএসসি বিষয় থেকে দৃষ্টি ঘোরাতেই কি তৃণমূলের এই চাল? শমীকের কথায়, ‘হতেও পারে। তবে এটা হলে তাতেও তৃণমূল ব্যর্থ। কারণ এই বিষয়গুলি এত বড় দুর্নীতি যে এইসব থেকে কিছুতেই মানুষের নজর ঘোরানো যাবে না।’

‘মুসলিম’ সন্দেহে পিটিয়ে খুন, গৃহযুদ্ধ ডেকে আনছি না তো!

You might also like