Latest News

শিশির-দিব্যেন্দুকে চিঠি দিল তৃণমূল, দলের নির্দেশ না মেনে উপরাষ্ট্রপতি নির্বাচনে ভোট দেন বাবা-ছেলে

দ্য ওয়াল ব্যুরো: শনিবার উপরাষ্ট্রপতি নির্বাচনে ভোট দিয়েছেন তৃণমূলের দুই সাংসদ শিশির অধিকারী ও দিব্যেন্দু অধিকারী (Sisir Adhikari-Dibyendu Adhikari)। কিন্তু এই নির্বাচনে তৃণমূল অংশ নেবে না সেই কথা আগেই জানিয়ে দেওয়া হয়েছিল দলের তরফে। তার পরও এই নির্বাচনে ভোট দিয়েছেন কাঁথি ও তমলুকের সাংসদ। দল যে বিষয়টা ভালভাবে নেবে না তা বোঝাই গিয়েছিল। এবার লোকসভার সংসদীয় নেতা সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায় (Sudip Banerjee) সেই কথাই চিঠি লিখে জানিয়ে দিলেন অধিকারী পরিবারের বাবা ছেলেকে। লিখলেন, ‘দল বিষয়টির ওপর নজর রাখছে।’

শনিবার দেশের উপরাষ্ট্রপতি নির্বাচন (Vice presidential Election 2022) হয়েছে। এনডিএ প্রার্থী জগদীপ ধনকড় ও বিরোধী প্রার্থী মার্গারেট আলভার মধ্যেকার লড়াইয়ে শেষ হাসি হাসেন বাংলার প্রাক্তন রাজ্যপালই। সেই নির্বাচনে ভোট দেবে তৃণমূল, এমন কথা জানিয়ে দলীয় সাংসদদের চিঠিও দিয়েছিলেন সুদীপ। কিন্তু সেই চিঠি তোয়াক্কা না করেই দিল্লি গিয়ে নিজেদের ভোট দিয়ে এসেছেন শিশির-দিব্যেন্দু!

যা নিয়ে ফের বিতর্ক শুরু হয়েছে। দলীয় (TMC) নির্দেশ অমান্য করে ভোট দেওয়ায় শিশির-দিব্যেন্দুকে চিঠি দিয়ে সতর্ক করল সুদীপ। চিঠিতে তিনি লিখলেন, গত ৪ অগস্ট আমার দেওয়া চিঠিতে দলের সব সাংসদদের বলা হয়েছিল এই নির্বাচন থেকে বিরত থাকতে। তবে আপনি এই নির্বাচনে ভোট দিয়েছেন। দল বিষয়টার ওপর নজর রাখছে।

রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের আগেও শিশির ও দিব্যেন্দুকে নিয়ে জল্পনা শুরু হয়েছিল। প্রশ্ন উঠেছিল, তাঁরা কাকে ভোট দেবেন। সেই সময় ‘দ্য ওয়াল’-ই প্রথম ব্রেক করেছিল খবরটা। দিব্যেন্দু দ্য ওয়ালকে জানিয়েছিলেন যে, তিনি বিরোধী প্রার্থী যশবন্ত সিনহাকেই ভোট দেবেন। শিশিরও জানিয়েছিলেন, নেত্রীর কথা অনুযায়ীই ভোট দেবেন।

কিন্তু তার পরেও তাঁদের নিয়ে সংশয় দেখিয়েছিল রাজ্যের শাসক দল। দলের অনেকেই বলেছিলেন, যদি এতই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দেবেন, তো দিল্লি গিয়ে কেন দিচ্ছেন। অন্যান্য বিধায়ক সাংসদদের মতো বাংলার বিধানসভায় এসে ভোট দিক। কিন্তু শিশির-দিব্যেন্দু সেই সময় দিল্লি গিয়ে ভোট দেন। যেহেতু এই নির্বাচন গোপন ব্যালটে হয়, তাই কে কাকে ভোট দিল তা জানা যায় না। তবে স্পষ্ট বাংলা থেকে বেশকিছু ক্রস ভোটিং হয়েছে। এদিকে গতকালের নির্বাচন নিয়েও ফের বিতর্ক উস্কে দিলেন বাবা-ছেলে।

ভোট দিলেন শিশির-দিব্যেন্দু! সুদীপের চিঠিকে পাত্তা দিলেন না বাবা-ছেলে

You might also like