Latest News

রবিবারই ছিল সুভাষের ছেলের বিয়ে, মেয়েও কোভিডে আক্রান্ত হয়ে দিল্লিতে আইসোলেশনে

দ্য ওয়াল ব্যুরো: কোভিডে আক্রান্ত হয়ে সুভাষ ভৌমিকের মৃত্যু হওয়ায় তাঁর মরদেহ কোথাও নিয়ে যাওয়া হবে না। পুত্র অর্জুন রাজ্য সরকারের কাছে অনুরোধ করেছেন যাতে নিউ আলিপুরের বাসভবনে একবার ঘুরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়। প্রিয় ইস্টবেঙ্গল মাঠেও যাওয়া হবে না ভোম্বলের। এই মাঠই ছিল তাঁর অবাধ বিচরণক্ষেত্র।

সুভাষ ভৌমিকের ছেলের বিয়ে নির্ধারিত ছিল রবিবারই। সেটি স্থগিত করা হয়েছে পরিবারের পক্ষ থেকে। ছেলে অর্জুনকে সঙ্গে করে ক্লাব কোচিং করাতে আসতেন। ছেলেই বাড়ি থেকে টিফিনকারি করে খাবার নিয়ে আসতেন।

সুভাষ চেয়েছিলেন পুত্র অর্জুনও যাতে ফুটবলার হোন, কিন্তু সেই নিয়ে তেমন আক্ষেপ পোষণ করতেন না। প্রায়ই বলতেন, ছেলেমেয়েরা নিজেদের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী মানুষ হবে, তাঁরা যেটি মনে করবে, সেটিই করবে, আমি কিছু চাপিয়ে দেব না।

সুভাষের একমাত্র কন্যা ইংল্যান্ডে বহুবছর ধরে। তিনি ম্যানেজমেন্ট নিয়ে পড়াশুনো করে চাকরি করছিলেন। বাবার অসুস্থতার খবর পেয়ে মেয়ে ভারতের উদ্দেশে রওনা হন। মেয়ে এসেও গিয়েছিলেন দিল্লিতে, কিন্তু তিনি কোভিডে আক্রান্ত হওয়ার জন্য দিল্লিতে আইসোলেশনে রয়েছেন।

সুভাষকে একবালপুরের নার্সিংহোমে ভর্তি করা হয়েছিল ১৩ জানুয়ারি। কোভিডে আক্রান্ত হন সপ্তাহ খানেক আগেই। কোভিডের জন্যই বাকি উপসর্গ আরও বেশি ধরে নেয়। ক্রীড়ামন্ত্রী অরূপ বিশ্বাসও বলেন, কোভিড বিধি মেনেই তাঁর সৎকার্য সম্পন্ন হবে। সুভাষের মরদেহ কোথাও নিয়ে যাওয়া হবে না।

 

You might also like