Latest News

বাঁকুড়ায় রেজাল্ট বিভ্রাটে বহু ফেল, স্কুলগেটে তালা ঝোলাল ছাত্রী ও অভিভাবকরা

দ্য ওয়াল ব্যুরো: উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষাই হয়নি। অথচ স্কুলের প্রায় অর্ধেক ছাত্রী ফেল করেছে। স্কুল কর্তৃপক্ষের গাফিলাতিতেই এমন ঘটনা দাবি করে স্কুলের মেন গেটে তালা লাগিয়ে বিক্ষোভে ফেটে পড়ল ছাত্রীরা। সোমবার ঘটনাটি ঘটেছে বাঁকুড়ার কেঞ্জাকুড়া দামোদর উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ে।

বাঁকুড়া জেলার অন্যতম ঐতিহ্যবাহী স্কুল কেঞ্জাকুড়া দামোদর উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়। চলতি বছর এই স্কুল থেকে ৭২ জন ছাত্রীর উচ্চ মাধ্যমিক দেওয়ার কথা ছিল। করোনার কারণে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা হয়নি। গত ১৮ জুলাই উচ্চ মাধ্যমিকের ফলাফল ঘোষিত হয়।

ফলাফল জানতে গিয়ে ছাত্রীরা জানতে পারে, প্রায় অর্ধেক ছাত্রী ফেল করেছে। ছাত্রীদের দাবি, স্কুলের মোট ৩৭ জন পরীক্ষার্থী অকৃতকার্য হয়েছে। যদিও প্রধান শিক্ষিকা জানিয়েছেন, অকৃতকার্য হয়েছে ৩২ জন।

পরীক্ষা না দিয়েও এত সংখ্যক পরীক্ষার্থী কেন অকৃতকার্য হল সেই প্রশ্ন তুলে ও গোটা ঘটনায় স্কুলের গাফিলাতিকে দায়ী করে এদিন থেকে আন্দোলনে নামে স্কুলের পড়ুয়ারা। সঙ্গে কিছু অভিভাবকও ছিলেন। দেখা যায়, স্কুলের মেনগেটে তালা দিয়ে ছাত্রীরা রাস্তায় বসে পড়ে বিক্ষোভ দেখাচ্ছে।

কেঞ্জাকুড়া বিক্ষিপ্ত ঘটনা নয়। রাজ্যের জেলায় জেলায় বহু স্কুলে উচ্চ মাধ্যমিকে অকৃতকার্য ছাত্রীর সংখ্যা এ বার কম করে কয়েক হাজার। জেলায় ও কলকাতায় এ নিয়ে গত কয়েকদিন ধরে লাগাতার বিক্ষোভ দেখাচ্ছে ছাত্রছাত্রীরা। সঙ্গে রয়েছেন অভিভাবকরাও। তা ছাড়া এ ঘটনায় সংসদকে দায়ী করতে শুরু করেছে অনেক স্কুল কর্তৃপক্ষও।

তাদের স্পষ্ট বক্তব্য, সংসদ মূল্যায়নের যে প্রক্রিয়া অবলম্বন করেছে তা ভ্রান্ত। তাতে গলদ রয়েছে। এই বিভ্রান্তির দায় নিয়ে সংসদকেই মার্কশিট শুধরে দিতে হবে। নইলে অনিশ্চিয়তা ও হতাশায় ভুগতে পারে বহু ছাত্রছাত্রীরা।

জেলায় জেলায় বিক্ষোভের মুখে পড়ে রবিবার আরামবাগ স্কুলের ছাত্রীদের নম্বর বাড়িয়েছে সংসদ। এখন দেখার বাকি স্কুল ও ছাত্রছাত্রীদের ব্যাপারে সংসদ কী অবস্থান নেয়।

You might also like