Latest News

দাঁইহাটের বড় বিলে হাজির পরিযায়ী পাখি, আগলে রাখতে নজরদারি পুরসভার

দ্য ওয়াল ব্যুরো : শীতের সঙ্গেই এসেছে পরিযায়ী পাখির ঝাঁক। সুদূর সাইবেরিয়া সহ বিভিন্ন জায়গা থেকে হাজার হাজার মাইল পাড়ি দিয়ে উড়ে এসেছে সেইসব শীতের অতিথিরা। কাটোয়ার দাঁইহাটের গঙ্গা লাগোয়া বড় বিল ভিনদেশি পাখিদের কলকাকলিতে মুখর। বিলের কাছে নিশ্চিন্তির তাঁবু ফেলেছে তারা। হুইসলিং, লিটল গ্রিব, বালি হাঁস সহ বিভিন্ন জাতের পাখির মেলা এখন সেখানে। অতিথি পাখিরা যাতে নিশ্চিন্তে থাকতে পারে তার জন্য বিশেষভাবে উদ্যোগী হয়েছে দাঁইহাট পুরসভাও।

ইতিমধ্যেই ঝাঁকে ঝাঁকে বিদেশি পাখি আকাশ জুড়ে আলপনা আঁকছে, বাড়াচ্ছে বড় বিলের শোভা। পাখি দেখতে কাটোয়া সহ আশপাশের এলাকা থেকে এসময় প্রচুর প্রচুর উৎসাহী মানুষ ভিড় জমান দাঁইহাটের বড় বিল এলাকায়। অতিথি পাখিরা যাতে নিশ্চিন্তে থাকতে পারে তার জন্য বিশেষভাবে উদ্যোগী হয়েছে দাঁইহাট পুরসভা কর্তৃপক্ষও। পাখিদের ধরা বা বিরক্ত করা দণ্ডনীয় অপরাধ বলে সতর্ক করা হয়েছে। জনসাধারণকে অবহিত করতে বিলের পাশে সতর্কীকরণ বিজ্ঞপ্তিও টাঙানো হয়েছে।

স্থানীয় বাসিন্দা কানাই মণ্ডল জানান, প্রতিবছর এই পরিযায়ী পাখিরা হাজির হলে প্রাণ আসে বড় বিলে। আমাদের এখানে কেউ পাখিদের বিরক্ত করে না বা কেউ ধরেও না। নিরিবিলি জায়গায় পাখিরা বেশ নিশ্চিন্তে থাকে। মাত্র কয়েকমাসের অতিথি তারা। গরম পড়তেই এই আস্তানা ছেড়ে দল বেঁধে উড়ে যাবে অন্য কোথাও। তবে তারা যতদিন না যাচ্ছে প্রাণ ফিরে পায় দাঁইহাট। ঝাঁকে ঝাঁকে পাখি দেখতে খুবই ভাল লাগে। পুরসভার তরফেও শীতের এই অতিথিদের আগলে রাখার ব্যবস্থা নিচ্ছে।

দাঁইহাটের পুর প্রশাসক শিশিরকুমার মণ্ডল জানিয়েছেন, গত কয়েক বছর ধরেই পরিযায়ী পাখিরা আসছে। পাখিরা আসবে বলে বিলের পানা অক্ষত রাখা হয়েছে। সেখানে খাবারেরও অভাব নেই। ফলে শীতের অতিথিরা বড় নিশ্চিন্তে এখানে থাকছে। পাখিদের দেখতে ভিড় বাড়ছে পর্যটকদেরও। আমরাও সতর্ক থাকছি। এলাকায় পুরসভার তরফে বিশেষ সতর্কতামূলক বিজ্ঞপ্তিও দেওয়া হয়েছে। পাখিদের যাতে কেউ কোনওরকম ক্ষতি করতে না পারে তার জন্য বড় বিলে রীতিমতো নজরদারি চালানো হচ্ছে।

You might also like