Latest News

ভোটের মধ্যে বাংলাদেশ সফরে মডেল আচরণবিধি ভেঙেছেন, কেন আপনার ভিসা বাতিল হবে না? মোদীকে তোপ মমতার

দ্য ওয়াল ব্যুরো: সরকারি কর্মসূচি পালনে দুদিনের বাংলাদেশ সফরে গিয়েছেন নরেন্দ্র মোদী। বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আমন্ত্রণ গ্রহণ করে পড়শী দেশের স্বাধীনতা অর্জনের ৫০ বছর পূর্তি ও সেদেশের জাতির জনক শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবর্ষ উদযাপনের অনুষ্ঠানে সামিল হওয়ার পূর্বনির্ধারিত সফরসূচি মেনেই তাঁর এই যাত্রা। ঘটনাচক্রে প্রধানমন্ত্রী যখন করোনাভাইরাস অতিমারী পর্বের পর প্রথম বিদেশ সফরে রয়েছেন, তখনই দেশে চলছে বিধানসভা ভোট । আজই এপার বাংলায় প্রথম পর্বের ভোটগ্রহণ চলছে। শনিবারই প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশের ওরাকান্দিতে মতুয়া সম্প্রদায়ের অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছেন, মতুয়াদের মন্দির সহ একাধিক মন্দির দর্শন, পুজো দিয়েছেন, তখনই তাঁর এই সফরকে কটাক্ষ করলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

রাজ্যে ভোটপর্বের মধ্যে সরকারি সফরে বাংলাদেশ যাওয়ায় মোদীর বিরুদ্ধে মডেল নির্বাচন আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ তুলেছেন মুখ্যমন্ত্রী। খড়্গপুরের নির্বাচনী সভায় তিনি বলেছেন, এখানে ভোট চলছে আর উনি বাংলাদেশে গিয়ে বাংলার ওপর ভাষণ দিচ্ছেন! নির্বাচনী আচরণবিধি পুরোপুরি ভেঙেছেন তিনি। কখনও কখনও ওরা বলে, মমতা বাংলাদেশ থেকে এখানে লোকজনকে নিয়ে এসেছে, অনুপ্রবেশ ঘটিয়েছে, কিন্তু উনি নিজেই ভোট মার্কেটিং করতে বাংলাদেশ চলে গেলেন!

২০১৯ এর লোকসভা ভোটের প্রচারে এক বাংলাদেশি অভিনেতার রাজ্য়ে এসে তৃণমূলের পক্ষে প্রচার করা নিয়ে জোর বিতর্ক হয়েছিল। সেই প্রসঙ্গ তুলে মমতার তোপ, বাংলাদেশি অভিনেতা আমাদের সমাবেশে থাকায় বিজেপি বাংলাদেশ সরকারের সঙ্গে কথা বলে তাঁর ভিসা বাতিল করায় আর এখানে যখন ভোট চলছে, আপনি এক সম্প্রদায়ের ভোট চাইতে বাংলাদেশ গেলেন। তাহলে আপনার ভিসা কেন বাতিল হবে না? আমরা নির্বাচন কমিশনে যাব।
পাশাপাশি নরেন্দ্র মোদীর দাড়ির বহর যত বাড়ছে, ভারতের অর্থনীতিরও তত সর্বনাশ হচ্ছে বলে কটাক্ষ করেন মমতা। বলেন, ভারতীয় অর্থনীতির বেহাল দশা চলছে, কোনও শিল্পের বৃদ্ধি নেই, নরেন্দ্র মোদীজীর দাড়ি বাদে আর কিছুই বাড়ছে না। কোনও সময় উনি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের মতো সাজেন, আবার কখনও মহাত্মা গাঁধীর বেশ ধরেন । সেইদিনটা খুব দূরে নয়, যেদিন গোটা দেশটা বিক্রি হয়ে যাবে, তার নামকরণ হবে নরেন্দ্র মোদীর নামে।

You might also like