Latest News

সাপের পেটে ৩০টা সেলাই! সুস্থ হয়ে ফের পরিবেশে ফিরে গেল জলপাইগুড়ির গোখরো, দেখুন ভিডিও

দ্য ওয়াল ব্যুরো: শাবলের আঘাত লেগে পেট থেকে নাড়িভুঁড়ি বেরিয়ে গেছিল সেই গোখরো সাপের। তবে ভাগ্যের জোর তার অনেক। সাপটিকে ফেলে রেখে পালায়নি মানুষের দল। তাকে বাঁচিয়ে তোলার চেষ্টা চলল দিনভর।

ঠিক কি হয়েছিল সেদিন?

জানা যায়, শুক্রবার সকালে জলপাইগুড়ি শিরিশতলা এলাকায় বিদ্যুৎ দফতরের পক্ষ থেকে রাস্তার পাশে বিদ্যুতের খুঁটি সরানোর কাজ চলছিল। সেই সময় শাবল দিয়ে খুঁটির গোড়া খুঁড়তে গিয়ে একটি বড়সড় গোখরো সাপের পেটে শাবলের কোপ পড়ে। কর্মীরা দেখেন গোখরো সাপটি যন্ত্রণায় ছটফট করছে। তার পেট ফেঁসে নাড়িভুঁড়ি বেরিয়ে এসেছে। সেই দেখে খারাপ লাগে অনেকের, সঙ্গে সঙ্গে এলাকার মানুষের সহায়তায় খবর যায় পরিবেশ কর্মী বিশ্বজিৎ দত্ত চৌধুরির কাছে।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন বিশ্বজিৎ বাবু। তিনি এসে সাপটিকে উদ্ধার করে জলপাইগুড়ি পশু হাসপাতালে নিয়ে যান। সাপটির করুন পরিনতি দেখে এগিয়ে আসেন পশু চিকিৎসকরাও। শুরু হয় গোখরো সাপের শুশ্রূষা।

দেখুন ভিডিও।

তার ক্ষতস্থান স্পিরিট দিয়ে মুছে সেলাই দিতে থাকেন ডাক্তাররা। নয় নয় করে প্রায় ৩০ টি সেলাই পড়ে সাপের পেটে। এরপর কিছুক্ষন তাকে পর্যবেক্ষণে রেখে প্রয়োজনীয় ওষুধ আর ইঞ্জেকশন প্রেসক্রাইব করে তাকে ফের বিশ্বজিৎ বাবুর হাতে তুলে দেন ডাক্তাররা।

শুক্রবার থেকে সাপটি বিশ্বজিৎ বাবুর কাছেই ছিল। ডাক্তারের নির্দেশ মেনে সময় মতো মলম লাগানো, ইনজেকশন দেওয়া সবই তিনি যত্ন সহকারে করেছেন। তারপর ২৪ ঘণ্টা পর দেখেন সাপের ক্ষতস্থান শুকিয়ে এসেছে। উচ্ছ্বসিত হয়ে ফের ডাক্তারের পরামর্শ নিন বিশ্বজিৎ বাবু, তারপর বন দফতরকে জানিয়ে সাপটিকে নিরাপদ জঙ্গলে ছেড়ে দেন।

একটা বিষধর সাপের প্রান বাঁচাতে যেভাবে জড়িয়ে গেলেন এতজন মানুষ, তা একরকম উদাহরণই বলা যায়। সেইসঙ্গে সাপটির যথাযথ শুশ্রূষা করে নজির গড়লেন জলপাইগুড়ি পশু হাসপাতালে বিশিষ্ট চিকিৎসক ও কম্পাউন্ডার। ঘটনায় উচ্ছ্বসিত পরিবেশ কর্মীরাও।

You might also like