Latest News

অ্যাম্বুলেন্সেও জিএসটি! কোভিড সামগ্রীতে কর বহাল থাকায় কেন্দ্রকে তুলোধুনো তৃণমূলের

দ্য ওয়াল ব্যুরো: কোভিড চিকিৎসা সামগ্রী, ওষুধের উপর জিএসটি কমিয়েছে কেন্দ্র সরকার। শনিবারের বৈঠকেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। কিন্তু কেন্দ্রের এই পদক্ষেপকেই এদিন তুলোধুনো করল তৃণমূল কংগ্রেস।

তৃণমূলের তরফে ব্রাত্য বসু এবং সুখেন্দু শেখর রায় এদিন সাংবাদিক বৈঠক করেছিলেন। সেখানে বলা হয়েছে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দীর্ঘদিন ধরে কোভিড সামগ্রীর উপর থেকে জিএসটি তুলে নেওয়ার সওয়াল করছেন। কিন্তু তাতে কান দিচ্ছে না কেন্দ্র। উপরন্তু আজ জিএসটি মকুব না করে তার পরিমাণ কমানো হয়েছে। একে একপ্রকার অর্থহীন বলেই দাবি করেছে তৃণমূল।

কেন্দ্রের নথিতে দেখা গেছে, অ্যাম্বুলেন্সের উপর জিএসটি ২৮ শতাংশ থেকে কমিয়ে ১২ শতাংশ করা হয়েছে। এ বিষয়ে প্রেস বিবৃতিতে তৃণমূল বলেছে, “এটা কি ইয়ার্কি? অ্যাম্বুলেন্সের উপর জিএসটি রাখার কথা ভাবে কী করে কেন্দ্র?” সরকারের অমানবিকতার দিকেও আঙুল তোলা হয়েছে।

দলের তরফে আরও বলা হয়েছে, কোভিডের দ্বিতীয় ঢেউতে দেশ জুড়ে ৩ কোটির কাছাকাছি মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। মারা গেছেন ৩ লাখ ৭০ হাজার মানুষ। এই পরিস্থিতিতে কোভিড সামগ্রীর উপর জিএসটি বহাল রাখা আদতে ‘জনবিরোধী’। সম্পূর্ণ জিএসটি হ্রাসের দাবিও জানিয়েছেন তৃণমূল কংগ্রেস।

গত ৯ মে জিএসটি মকুবের অনুরোধ জানিয়েছে প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। পাল্টা তার জবাবও টুইটে দিয়েছিলেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সিতারামন।

এদিন রাজ্যের তরফে অমিত মিত্রও আলাদা করে চিঠি দিয়েছেন নির্মলাকে। তাতে তিনিও দাবি করেছেন কেন্দ্রের সিদ্ধান্ত জনবিরোধী। বস্তুত, এদিন জিএসটি কাউন্সিল বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন অমিত মিত্রও। কিন্তু তাঁকে কিছুই বলতে দেওয়া হয়নি বলে অভিযোগ করেছেন তিনি।

কেন্দ্র জানিয়েছে, কর ছাড়ের এই সিদ্ধান্ত আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত বহাল থাকবে।

You might also like