Latest News

তুফানগঞ্জ কলেজে ছাত্রীকে ধর্ষণ, বহিরাগতরা দায়ী, বলছে তৃণমূল

দ্য ওয়াল ব্যুরো: নারকীয় ঘটনা ঘটল কোচবিহারে। তুফানগঞ্জ কলেজের ক্লাসের মধ্যে এক ছাত্রীকে ধর্ষণ করা হয়েছে বলে অভিযোগ। আশঙ্কাজনক অবস্থায় দ্বিতীয় বর্ষের ওই ছাত্রীকে ভর্তি করা হয়েছে তুফানগঞ্জ মহকুমা হাসপাতালে। যার বিরুদ্ধে এই ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে সেই তাপস দাস কলেজের ছাত্রই নয় বলে জানা গিয়েছে।

ঘটনা কী? গত ৩০ নভেম্বর তুফানগঞ্জ কলেজের ভতর ছাত্রীকে ধর্ষণ করা হয় বলে অভিযোগ। ঘটনার পর তিনি বাড়িতে কিছু জানাননি। পরের দিন যৌনাঙ্গ থেকে রক্তক্ষরণ শুরু হতেই আতঙ্কিত হয়ে বাড়ির লোককে সবটা জানান ওই ছাত্রী। এরপরই থানায় অভিযোগ দায়ের হয়। কোচবিহারের পুলিশ সুপার সুমিত কুমার দাস জানিয়েছেন, কলেজের ভিতর ধর্ষণের অভিযোগ দায়ের হয়েছে। অভিযুক্তর খোঁজে তল্লাশি চালাচ্ছে পুলিশ।

ওই কলেজের অধ্যক্ষ দেবাশিস চট্টোপাধ্যায় বলেন, ছাত্রীর অভিভাবক আজ আমাদের ঘটনার কথা জানিয়েছেন। জানানোর পরেই কলেজের তরফে আমরা পুলিশকে জানিয়েছি।”
গোটা ঘটনা নিয়ে তোলপাড় পড়ে গিয়েছে তুফানগঞ্জে। তৃণমূল ছাত্র পরিষদ দোষীকে গ্রেফতারের দাবিতে দফায় দফায় বিক্ষোভ দেখাচ্ছে শনিবার। এক টিএমসিপি নেতা বলেন, কলেজে বহিরাগতদের ঢোকাচ্ছে কিছু সিনয়র। এটা কিছুতেই মেনে নেওয়া হবে না।

এখন প্রশ্ন হচ্ছে এই বহিরাগত কারা? এমনিতে কোচবিহারে তৃণমূলের গোষ্ঠী কোন্দল সর্বজনবিদিত। অনেকেরই প্রশ্ন, কারা এমন মাতব্বরি করছে যাদের বিরুদ্ধে শাসকদলের ছাত্র সংগঠনের একটা অংশও অভিযোগের আঙুল তুলছে? অভিযুক্ত যুবকের মাথায় এক প্রভাবশালীর হাত রয়েছে বলেও অভিযোগ স্থানীয়দের একাংশের। তাঁদের বক্তব্য, সে কারণেই ওই যুবককে শনিবার দুপুর পর্যন্ত গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। কলেজের ক্লাসে ছাত্রীকে ধর্ষণের ঘটনায় আন্দোলিত জেলা প্রশাসন।

You might also like