Latest News

তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষে রণক্ষেত্র সন্দেশখালি, তৃণমূলের প্রতিবাদ মিছিলে গুলি, মৃতের সংখ্যা বাড়ার সম্ভাবনা

দ্য ওয়াল ব্যুরো: তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষে রণক্ষেত্রে পরিণত হলো সন্দেশখালির হাটগাছি গ্রাম। তৃণমূলের প্রতিবাদ মিছিলে চলল গুলি। তৃণমূল কর্মী-সমর্থকদের কুপিয়ে খুন করার অভিযোগও উঠল। সংঘর্ষের ঘটনায় দু’পক্ষেরই বেশ কয়েকজন কর্মীর নিহত হওয়ার খবর মিলেছে। জখম বহু।

পুলিশ জানিয়েছে, মৃতদের মধ্যে একজনের নাম কাইয়ুম মোল্লা। বয়স ২৪ বছর। স্থানীয় তৃণমূল কর্মীদের অভিযোগ, শনিবার তৃণমূলের মিছিল লক্ষ্য করে এলোপাথাড়ি গুলি চালাচ্ছিল বিজেপি কর্মীরা। সেই সময় কাইয়ুমের মাথায় গুলি লাগে। মৃত্যু নিশ্চিত করতে তাঁকে রাস্তার ধারে টেনে এনে ধারালো অস্ত্রের কোপ বসানো হয়। শাসক দলের দাবি, বিজেপি কর্মীদের হামলায় মৃত্যু হয়েছে কাইয়ুম-সহ আরও কয়েকজন তৃণমূল কর্মীর। যদিও মৃতের সংখ্যা নিশ্চিত করে জানা যায়নি। পুলিশ জানিয়েছে, মৃতদের মধ্যে তৃণমূল ও বিজেপি, দু’দলেরই লোক থাকার সম্ভাবনা রয়েছে।

অন্যদিকে, বিজেপি দাবি করেছে, তৃণমূল কর্মীদের হামলায় তাদের দলের পাঁচ কর্মী নিহত হয়েছেন।যাঁদের নাম, সুকান্ত মণ্ডল (২৮), তপন মণ্ডল (২৫), প্রদীপ মণ্ডল (৩৬), দেবব্রত মণ্ডল ও শঙ্কর মণ্ডল (৩০)। বিজেপি নেতা সায়ন্তন বসুর দাবি, ঘটনায় খোঁজ মিলছে না আরও দুই বিজেপি কর্মীর।

স্থানীয় সূত্রে খবর, নির্বাচনের ফল প্রকাশের পর থেকেই হাটগাছি গ্রামে তাণ্ডব শুরু করেছে বিজেপি কর্মী-সমর্থকরা। তৃণমূলের দলীয় কার্যালয় দখল করে সেখানে বিজেপির পতাকা লাগানোর কাজ চলছিন বেশ কয়েকদিন ধরেই। তারই প্রতিবাদে শনিবার সন্ধে ৬টা নাগাদ প্রতিবাদ মিছিল শুরু করে তৃণমূল কর্মীরা। সেই মিছিলেই হামলা চালানোর অভিযোগ উঠেছে বিজেপির বিরুদ্ধে। এই অভিযোগ সম্পূর্ণ অস্বীকার করে বিজেপির দাবি, এলাকায় দীর্ঘদিন ধরেই তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব চলছিল। এ দিনের ঘটনা তারই ফল।

সন্দেশখালি ১ নম্বর ব্লক সভাপতি শেখ শাহজাহানের কথায়, “বিজেপি হাটগাছি এলাকায় গণ্ডগোল পাকানোর চেষ্টা করছে। পূর্ব পরিকল্পিত ভাবে আমাদের কর্মীদের খুন করা হয়েছে। আমরা এর তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি। আগামিকাল ধিক্কার মিছিল ও প্রতিবাদ সভা হবে। ”

আরও পড়ুন:

https://www.four.suk.1wp.in/news-west-bengal-sandeshkhali-clash-mukul-roy-said-the-party-will-apprise-union-home-minister-amit-shah-about-the-incident/

You might also like