Latest News

হাওড়ায় ‘সমকাজ, সমবেতন’ চেয়ে বিক্ষোভে সাফাইকর্মীরা, ভোগান্তি ওয়ার্ড এলাকায়

দ্য ওয়াল ব্যুরো: বর্ধমানের পর এবার হাওড়ায়। বেতন বৃদ্ধির দাবি নিয়ে অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতিতে গেলেন হাওড়া পুরসভার অস্থায়ী কর্মীরা। বিশেষত, হাওড়া পুরসভার অস্থায়ী সাফাইকর্মীরাই সোমবার কর্মবিরতি পালন করছেন। তাঁদের দাবি, অস্থায়ী সাফাই কর্মীদের স্থায়ী করতে হবে, একই সঙ্গে বেতন বৃদ্ধি ও কোনও সাফাই কর্মীর মৃত্যু হলে তাঁর একজন সন্তানকে চাকরি দেওয়ার দাবি রাখা হয়েছে।

সোমবার সকালে এই সমস্ত দাবি- দাওয়া নিয়ে হাওড়া পুরসভা চত্বরে বিক্ষোভে ফেটে পড়েন অস্থায়ী সাফাই কর্মীরা। পুরসভার গেটে দফায় দফায় বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন তাঁরা। ”সমকাজে সমবেতন” বলে স্লোগান তুলতে থাকেন।

পুরসভা সূত্রে জানা গিয়েছে, এদিন প্রথমে বঙ্কিম সেতুর নীচে জড়ো হয়ে ছিলেন কয়েকশ পুরুষ ও মহিলা সাফাই কর্মী। সেখান থেকে বিক্ষোভ দেখতে শুরু করেন তাঁরা। এরপর পুরনিগমের গেটে গিয়ে বিক্ষোভ দেখান। রাস্তায় বসে পড়ে অবরোধ শুরু করেন। পুরসভার ওই অস্থায়ী কর্মীরা এর আগেও একাধিকবার প্রাক্তন মেয়র এবং পুর কমিশনারের কাছে তাঁদের দাবি-দাওয়া রেখে ছিলেন। কিন্তু কাজের কাজ কিছু হয়নি। তাঁদের দাবিতে আমল দেয়নি পুরসভা বলে অভিযোগ। তাই এদিন বাধ্য হয়ে কাজে যোগ না দিয়ে বিক্ষোভ-আন্দোলন শুরু করেছেন বলে জানান আন্দোলনকারীরা।

সুবোধ মল্লিক নামে এক সাফাইকর্মী জানান, অবিলম্বে বেতন বৃদ্ধি ও অন্যান্য স্থায়ীকর্মীদের যে সুযোগ-সুবিধা দেওয়া হয়, তাঁদের ক্ষেত্রেও তা দিতে হবে। তা না হলে বিক্ষোভ চালিয়ে নিয়ে যাওয়ার হুমকি দেন সুবোধ।

রাজ্যের সমবায় মন্ত্রী এবং হাওড়া পুরসভা বোর্ডের প্রাক্তন প্রশাসনিক সদস্য অরূপ রায় জানিয়েছেন, তিনি এ বিষয়ে পুর-কমিশনারের সঙ্গে কথা বলেছেন। পুর-দফতরের সেক্রেটারি সঙ্গেও কথা হয়েছে তাঁর। খুব শিগরিই সমস্যার সমাধান সূত্র পাওয়া যাবে বলে আশ্বাস দেন তিনি।

কিন্তু কর্মদিবসের প্রথম দিনে সাফাইকর্মীদের আন্দোলনের জেরে ওয়ার্ড এলাকাগুলিকে ময়লাস্তূপ জমে গিয়েছে। তাতে অসুবিধায় পড়তে হয়েছে এলাকার বাসিন্দাদের। রাস্তার ধারের ভ্যাটগুলি থেকে ময়লা উপচে পড়ছে। এদিকে রাস্তাতেও ঝাঁট দেওয়ার কাজ বন্ধ। সব মিলিয়ে ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন হাওড়ার বাসিন্দারা। এখনই সমাধান খুঁজে না বের করলে সমস্যা আরও চরমে উঠবে।

You might also like