Latest News

মহানন্দার জলে প্লাবিত পুরাতন মালদহের তিনটি ওয়ার্ড, বাড়ছে গঙ্গা ও ফুলহারের জলও

পুরাতন মালদা পুরসভার প্রশাসক কার্তিক ঘোষ বলেন, ‘‘৮, ৯ এবং ২০ নম্বর ওয়ার্ডের বিভিন্ন সংরক্ষিত এলাকায় মহানন্দা নদীর জল ঢুকতে শুরু করেছে। প্রায় আড়াইশো পরিবার নদীর জলে প্লাবিত হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে মনে করা হচ্ছে।

দ্য ওয়াল ব্যুরো, মালদহ: মহানন্দা নদীর জলে প্লাবিত হল পুরাতন মালদহ পুরসভার ৮, ৯ এবং ২০ নম্বর ওয়ার্ডের বিভিন্ন এলাকা। শনিবার সকাল থেকেই ওইসব ওয়ার্ডে মহানন্দা নদীর জল ঢুকতে শুরু করায় ব্যাপক আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। সংশ্লিষ্ট এলাকার বাসিন্দারা তড়িঘড়ি হাতের কাছে যতটুকু পেরেছেন, গুছিয়ে নিয়ে অন্যত্র আশ্রয়ের খোঁজে রওনা হন।

মহানন্দা নদীর জলে ওইসব ওয়ার্ডের বিভিন্ন এলাকা প্লাবিত হওয়ার খবর পেয়ে পরিদর্শনে যান পুরাতন মালদার প্রশাসক কার্তিক ঘোষ এবং ওইসব ওয়ার্ডের প্রাক্তন কাউন্সিলররা। তাঁদের সামনেই আশ্রয়ের ব্যবস্থা করার এবং ত্রাণ পাওয়ার দাবি জানাতে শুরু করেন প্লাবিত এলাকার শতাধিক বাসিন্দা। পুরসভার প্রশাসক কার্তিক ঘোষের হস্তক্ষেপে অবশেষে ওইসব ওয়ার্ডের বিপর্যস্ত বাসিন্দাদের সরকারি লাইব্রেরি এবং স্কুলে অস্থায়ীভাবে রাখার ব্যবস্থা করা হয়।

পুরাতন মালদা পুরসভার প্রশাসক কার্তিক ঘোষ বলেন, ‘‘৮, ৯ এবং ২০ নম্বর ওয়ার্ডের বিভিন্ন সংরক্ষিত এলাকায় মহানন্দা নদীর জল ঢুকতে শুরু করেছে। প্রায় আড়াইশো পরিবার নদীর জলে প্লাবিত হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে মনে করা হচ্ছে। ওইসব পরিবারগুলিকে আশেপাশের স্কুল, সরকারি লাইব্রেরিতে রাখার ব্যবস্থা করে দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি বন্যা দুর্গতদের সবরকম ভাবে সাহায্যের আশ্বাস দেওয়া হয়েছে।’’

বৃহস্পতিবার থেকেই জল বাড়তে শুরু করেছে মহানন্দা নদীতে। পাশাপাশি উত্তরবঙ্গে ভারী বর্ষণের ফলে জল বাড়তে শুরু করেছে রতুয়া-১ নম্বর ব্লকের অন্তর্গত ফুলহার ও গঙ্গা নদীতেও। বিপদসীমার উপর দিয়ে বইছে জল। ইতিমধ্যে শুরু হয়েছে নদী ভাঙনও। আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন মহানন্দাটোলা ও বিলাইমারি গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার বাসিন্দারা।

দিন কয়েক ধরে রতুয়া-১ ব্লকের মহানন্দাটোলা ও বিলাইমারি এলাকায় ব্যাপক হারে শুরু হয়েছে নদী ভাঙন। এর জেরে  ওই দুই গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রায় কয়েকশো বিঘা ফসলি জমি সহ আম বাগান তলিয়ে গেছে নদীগর্ভে। আতঙ্কে দিন কাটছে ওই দুই গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার কাটাহা দিয়ারা, গঙ্গারামটোলা, দ্বারকটোলা, রুহিমাড়ি, আজিজটোলা সহ প্রায় আটটি গ্রামের মানুষের।

You might also like