Latest News

পিনকন চিটফান্ড মামলায় সংস্থার কর্ণধার ও তাঁর স্ত্রী-সহ আটজনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের সাজা

বে-আইনি অর্থলগ্নি সংস্থা পিনকনে টাকা রেখে প্রতারিত হয়েছিলেন অনেকেই। সেই সমস্ত ক্ষতিগ্রস্ত আমানতকারীদের একাংশ ২০১৭ সালে পিনকন সংস্থার বিরুদ্ধে খেজুরি থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। ওই বছরের ৪ নভেম্বর রাজস্থান থেকে পিনকনের অন্যতম ডিরেক্টর মনোরঞ্জন রায় সহ কয়েকজনকে গ্রেফতার করে ডিরেক্টর অফ ইকোনমিক অফেন্স এর আধিকারিকরা। একে একে মনোরঞ্জনের স্ত্রী সহ কুড়িজন ডিরেক্টর গ্রেফতার হন।

দ্য ওয়াল ব্যুরো, পূর্ব মেদিনীপুর: পিনকন চিটফান্ড মামলার সাজা ঘোষণা করল তমলুক জেলা দায়রা আদালতের অধীন অর্থনৈতিক অপরাধের বিশেষ আদালত। সংস্থার কর্ণধার মনোরঞ্জন রায় ও মৌসুমী রায়-সহ আটজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিল আদালত। এই মামলায় মোট ২০ জন আসামি ছিলেন। তাঁদের মধ্যে দশজনকে বেকসুর খালাস দিয়েছে আদালত। মামলা চলাকালীন দু-জনের মৃত্যু হয়েছে। এই আটজনের মধ্যে মূল অভিযুক্ত মনোরঞ্জন ও তাঁর স্ত্রী মৌসুমী অসুস্থতার কারণে হাজির হতে না পারায় ভিডিও কনফারেন্সে তাঁদের সাজা শোনানো হয়।

বেআইনি অর্থলগ্নী সংস্থা পিনকন মামলার রায় ঘোষণার দিন ওই সংস্থার অন্যতম ডিরেক্টর মনোরঞ্জন রায়কে সমস্তরকম মেডিক্যাল সাপোর্ট দিয়ে তমলুক আদালতে হাজির হওয়ার নির্দেশ দিয়েছিলেন বিচারক। সেই সঙ্গে মনোরঞ্জনের স্ত্রী মৌসুমী রায়কেও হাজির হওয়ার নির্দেশ দেন বিচারক। এই চিটফান্ড কেলেঙ্কারি নিয়ে ঝড় উঠেছিল গোটা রাজ্যে। সেই মামলার রায় ঘোষণা। তাই সকাল থেকেই আদালত চত্বরে মোতায়েন ছিল বিশাল পুলিশবাহিনী।

বে-আইনি অর্থলগ্নি সংস্থা পিনকনে টাকা রেখে প্রতারিত হয়েছিলেন অনেকেই। সেই সমস্ত ক্ষতিগ্রস্ত আমানতকারীদের একাংশ ২০১৭ সালে পিনকন সংস্থার বিরুদ্ধে খেজুরি থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। ওই বছরের ৪ নভেম্বর রাজস্থান থেকে পিনকনের অন্যতম ডিরেক্টর মনোরঞ্জন রায় সহ কয়েকজনকে গ্রেফতার করে ডিরেক্টর অফ ইকোনমিক অফেন্স এর আধিকারিকরা। একে একে মনোরঞ্জনের স্ত্রী সহ কুড়িজন ডিরেক্টর গ্রেফতার হন।

তমলুক জেলা দায়রা আদালতের অধীন অর্থনৈতিক অপরাধের বিশেষ আদালতে মামলার শুনানি শুরু হয়। পরবর্তীকালে  মনোরঞ্জনের স্ত্রী মৌসুমী রায় কলকাতা হাইকোর্ট থেকে জামিন পান। বিচারপর্ব চলাকালীন দুই ডিরেক্টর মারাও যান। দীর্ঘ শুনানির শেষে বিচারক শনিবার এই মামলার রায় ঘোষণার দিন ধার্য্য করেন।

অভিযোগ, বিচার প্রক্রিয়াকে আরও দীর্ঘায়িত করার জন্য অন্যতম অভিযুক্ত পিনকন কর্তা মনোরঞ্জন রায় অসুস্থ রয়েছেন বলে চিকিৎসকের শংসাপত্র তমলুক আদালতে জমা করেন। বিচারপতি সেই আবেদনের প্রেক্ষিতে আজ মনোরঞ্জন রায়কে আদালতে হাজির হওয়ার নির্দেশ দিয়েছিলেন। দরকার হলে সমস্ত রকম মেডিকেল সাপোর্ট নিয়ে এমনকি যে দুজন চিকিৎসকের অধীনে রয়েছেন তিনি, তাঁদের সঙ্গে নিয়েই আসতে হবে বলে জানান। মনোরঞ্জনের স্ত্রী মৌসুমীকেও হাজির হওয়ার নির্দেশ দেন। কিন্তু দুজনেই অনুপস্থিত থাকায় ভিডিও কনফারেন্সে তাঁদের সাজা শোনানো হয়।

You might also like