Latest News

লকডাউনের মধ্যেই ভাড়া বৃদ্ধির দাবিতে সরব বর্ধমানের বাস মালিকরা

দ্য ওয়াল ব্যুরো, পূর্ব বর্ধমান: লকডাউন শেষ হলেই বাস ভাড়া বাড়ানোর দাবিতে সরব হলেন বর্ধমান শহরের টাউন সার্ভিস বাস মালিকরা। করোনা মোকাবিলায় লকডাউনের জেরে রাজ্যজুড়ে কার্যত বন্ধ রয়েছে গণপরিবহন ব্যবস্থা। রাজ্যের কোথাও ঘুরছে না বাসের চাকা। আর এরই মধ্যে পেট্রোল ও ডিজেল দাম আকাশছোঁয়া। প্রতিদিনই লাফিয়ে লাফিয়ে দাম বাড়ছে তেলের। যার জেরে এবার বাস ভাড়া বৃদ্ধির দাবিতে সরব হলেন বর্ধমান টাউন সার্ভিস বাস ওনার্স সমিতি। মঙ্গলবার তাঁরা বিক্ষোভ দেখান বর্ধমানের পূর্বাসা বাস টার্মিনাসে। তাঁদের দাবি, এই পরিস্থিতিতে বাস ভাড়া বৃদ্ধি না হলে তাঁদের পক্ষে আর বাস চালানো সম্ভব হবে না।

বর্ধমান টাউন সার্ভিস বাস ওনার্স সমিতির সাধারণ সম্পাদক বাবলু শর্মা বলেন, ‘‘দীর্ঘদিন ধরে বাসের ভাড়া বৃদ্ধি হয়নি, কিন্তু খরচ বেড়েছে কয়েকগুণ। গত লকডাউন থেকে মাত্র কয়েকমাস বাস রাস্তায় নেমেছিল। বাকি সময় লকডাউনের জেরে আমরা বাস চালাতে পারেননি। যখন বাস চলাচল করেছে তখনও ক্ষতির বোঝা লাঘব হয়নি। ফলে বর্তমানে আমরা চরম আর্থিক সংকটের মধ্যে রয়েছি। এমন অবস্থায় বাস ভাড়া বৃদ্ধি না হলে আমাদের পক্ষে আর বাস চালানো সম্ভব হবে না।’’

এই সমস্যা নিয়ে তাঁরা ইতিমধ্যেই জেলা পরিবহণ দফতর, জেলা প্রশাসনকে লিখিত ভাবে জানিয়েছেন,  এমনকি তাদের কেন্দ্রীয় সংগঠনের পক্ষ থেকে মুখ্যমন্ত্রীকেও জানানো হয়েছে বলে জানান বাবলুবাবু।

বাস মালিকদের দাবি, লকডাউন উঠে গেলে বাস পরিষেবা স্বাভাবিক হলে ভাড়া বৃদ্ধির পাশাপাশি তাঁদের জন্য আর্থিক প্যাকেজ অনুমোদন করুক সরকার। বর্তমানে বর্ধমান শহর ও শহরতলি মিলিয়ে ৭০ টির মতো টাউন সার্ভিস বাস চলে। তিনবছর আগে ২০১৮ সালে শেষ বাসের ভাড়া বাড়ানো হয়েছিল। বাবলু শর্মা বলেন, ‘‘তখন ডিজেলের লিটার ছিল ৬০ থেকে ৬২ টাকা। এখন ডিজেলের দাম লিটারে ৯০ টাকা। কিন্তু এখনও সর্বনিম্ন বাস ভাড়া ৮ টাকা।’’ সরকার তাঁদের দাবি না মানলে তাঁরা আর রাস্তায় বাস নামতে পারবেন না বলে জানান।

You might also like