Latest News

মুখোশ বানান বরাবর, এখন বাঁচার রসদ খুঁজতে ‘মাস্ক’ গড়ছেন চড়িদার শিল্পীরা

ছৌ নাচের আসর বসে না আর। করোনা পরিস্থিতিতে অযোধ্যা পাহাড়ে আসেন না পর্যটকরাও। তাই সংসার অচল হয়ে পড়ে এই সমস্ত মুখোশ শিল্পীদের। এখন তাঁরাই ঘুরে দাঁড়াচ্ছেন মাস্কের ভরসায়।

দ্য ওয়াল ব্যুরো,পুরুলিয়া: অযোধ্যা  পাহাড়ে বেড়াতে গেছেন, অথচ মুখোশ নিয়ে ফেরেননি এমন বাঙালি হাতেগোনা। বাংলার ঐতিহ্যের সঙ্গে জড়িয়ে থাকা ছৌ নাচের মুখোশ তৈরি করেন বাঘমুন্ডির চড়িদা গ্রামের মানুষ। পুরুলিয়ার যত ছৌ নাচের দল, প্রায় সবাই মুখোশ কিনতে যান এখানে। পর্যটকরা তো আছেনই।

কিন্তু এখন দোকান খুলে বসে আছেন মুখোশ শিল্পীরা। বিক্রি নেই। প্রথমে লকডাউনের জেরে অচল হয়েছিল রুটিরুজি। এখন দোকান খুললেও মুখোশ কিনবে কে?

ছৌ নাচের আসর বসে না আর। করোনা পরিস্থিতিতে অযোধ্যা পাহাড়ে আসেন না পর্যটকরাও। তাই সংসার অচল হয়ে পড়ে এই সমস্ত মুখোশ শিল্পীদের। এখন তাঁরাই ঘুরে দাঁড়াচ্ছেন মাস্কের ভরসায়। যেমনভাবে এতদিন মুখোশ তৈরি করেছেন, এখন একইভাবে তৈরি করছেন জীবনদায়ী মাস্ক। সুদৃশ্য এবং বাহারি। বিক্রিও মোটের উপর মন্দ নয়। কোনওরকমে আবার সচল হচ্ছে সংসারের চাকা। এই কঠিন সময়ে মাক্স তৈরি করে ঘুরে দাঁড়াতে চাইছেন ছৌ মুখোশ শিল্পীদের গ্রাম চড়িদা।

 

You might also like