Latest News

ডাক্তারবাবুর পায়ের কাছেই গোখরো সাপ! জলপাইগুড়ি হাসপাতালে আতঙ্ক

দ্য ওয়াল ব্যুরো: হাসপাতালে ডাক্তারবাবুর (doctor) পায়ের কাছে ঘাপটি মেরে বসেছিল একটি গোখরো সাপ (spectical cobra)। টেরই পাননি তিনি। লাইট জ্বালতেই হুলুস্থুল কাণ্ড ঘটল জলপাইগুড়ি সদর হাসপাতালের আউটডোরে (Jalpaiguri hospital)।

এই হাসপাতালের পতঙ্গ বিশেষজ্ঞ ডাক্তার রাহুল সরকার প্রতিদিনের মতো মঙ্গলবার সকালে নির্দিষ্ট সময়ে তাঁর ঘরের তালা খুলে ভিতরে ঢোকেন। পরে আলো জ্বালতেই তিনি দেখতে পান, পায়ের কাছে কুণ্ডলী পাকিয়ে বসে আছে একটি গোখরো সাপ (Snake)। আতঙ্কে সঙ্গে সঙ্গে সরে যান তিনি। এরপর খবর দেওয়া হয় বন দফতরে (forest department)।

সেই খবর মুহূর্তে চাউর হয়ে যায় হাসপাতাল চত্বরে। সাপ ঢুকেছে শুনে ভয়ে আউটডোর ছেড়ে পালাতে থাকেন ডাক্তার দেখাতে আসা রোগী ও তাঁদের পরিজনেরা। ততক্ষণে অবশ্য খবর পেয়ে ছুটে আসেন বনকর্মী সৌভিক মণ্ডল। তিনি এসে সাপটিকে উদ্ধার করেন।

ডাক্তার রাহুল রায় জানান, তিনি ঘরের তালা খুলে ভেতরে ঢুকে আলো জ্বালার জন্য সুইচ বোর্ডের কাছে যাচ্ছিলেন। দরজা থেকে সুইচবোর্ড খানিকটা দূরে। ঘর অন্ধকার ছিল। লাইট জ্বালতেই দেখেন তাঁর পায়ের কাছে একটি গোখরো সাপ।

ঘটনার কথা জানতে পেরে ছুটে আসেন জেলার মুখ‍্য স্বাস্থ্য আধিকারিক ডাক্তার অসীম হালদার। তিনি বলেন, “আমাদের পতঙ্গ বিশেষজ্ঞর যে ল্যাবরেটরি রয়েছে, তার ভেতর ঢুকে গিয়েছিল একটি গোখরো সাপ। আমাদের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ডাক্তার রাহুল রায়ের পায়ের খুব কাছেই ছিল সাপটি। বন দফতরের কর্মীরা এসে সাপটিকে উদ্ধার করে নিয়ে যায়।”

বনকর্মী সৌভিক মণ্ডল জানান, এটি একটি স্পেকটিক্যাল কোবরা। লম্বায় প্রায় আড়াই ফুট। তিনি এসে সাপটিকে উদ্ধার করে উপযুক্ত পরিবেশে ছেড়ে দেন।

পুজোয় ঢেলে মদ বিক্রি বাংলায়, কত টাকার ব্যবসা হল আন্দাজ আছে!

You might also like