Latest News

রামুয়া খুনের ছক স্ত্রী কাজলেরই, লেডিস ব্যাগ থেকে উদ্ধার ৪০ রাউন্ড গুলি

দ্য ওয়াল ব্যুরো: গুলি নয়, বরং ইট দিয়ে মাথা থেঁতলে ঘুমন্ত রামুয়াকে খুন করার ছক কষে ছিল প্রশান্ত, বিশাল ও শ্যামসুন্দর । সোমবার রামুয়া খুনের পুনর্নির্মাণে নেমে প্রথমেই এই তথ্য পুলিশের হাতে আসে । ঘটনাস্থলে তিন জনকে নিয়ে গেলে তারাই পুলিশকে জানায়, কীভাবে ইট দিয়ে রামুয়াকে খুন করার পরিকল্পনা করা হয় । সোদপুরে রামুয়ার ফ্ল্যাটের বাইরে সেই ইট উদ্ধারও করে পুলিশ ।

সোমবার দুই দফায় রামুয়া খুনের পুনর্নির্মাণ করে পুলিশ । প্রথম দফায় ধৃত তিনজনকে ঘটনাস্থলে নিয়ে যাওয়া হয় । দ্বিতীয় দফায় রামুয়ার স্ত্রী কাজল ও ছেলে সমীরকে নিয়ে পুনর্নির্মাণ করা হয় ।

ঘটনার দিন ইট দিয়ে রামুয়ার উপর হামলা করার আগেই বিশালদের আটকে দেয় কাজল । বিশাল জানাচ্ছে, ঘটনার দিন ইট হাতে ফ্ল্যাটের গেট দিয়ে ঢুকে পড়ে তারা । তখনই তাদের থামিয়ে ইটের বদলে হাতে সেই অত্যাধুনিক ৭.৬২ পিস্তল ধরিয়ে দেয় রামুয়ার স্ত্রী কাজল । গেটেই ইটটি ফেলে  দিয়ে রামুয়ার ঘরের দিকে যায় ওই তিনজন । পয়েন্ট ব্ল্যাঙ্ক রেঞ্জে ঘুমন্ত রামুয়ার বালিসের সঙ্গে বন্দুক ঠেকিয়ে তার কানে গুলি  করা হয় । প্রথম গুলিতেই মৃত্যু হয় রামুয়ার। কিন্তু আশঙ্কার থেকেই আরও একবার একই রেঞ্জ থেকে গুলি করা হয়। যা লক্ষ্যভ্রষ্ট হয় বলে জানাচ্ছে বিশাল।

সেই গুলির খোলটি সোদপুর-মধ্যমগ্রাম রোডে একটি বড় নালায় ফেলে দেওয়া হয়। আজ ধৃতদের সেই জায়গায় নিয়ে গিয়েই গুলির খোল উদ্ধার করে পুলিশ। এরপরই পুনর্নির্মাণের দ্বিতীয় দফায় স্ত্রী কাজল ও ছেলে সমীরকে নিয়ে আসে পুলিশ। রামুয়ার ঘরে ঢুকে কীভাবে তাকে গুলি করা হয়, তা অভিনয় করে দেখায় কাজল-সমীর।পাশপাশি একটি লেডিস ব্যাগে ৪০ রাউন্ড গুলি আছে বলেও জানায় কাজল, যা উদ্ধার করে পুলিশ।

পুনর্নির্মাণের পর পুলিশ নিশ্চিত, পাঁচ জনেই খুব ঠান্ডা মাথায় খুনের ছক কষে। ঘুমন্ত অবস্থায় রামুয়াকে মারার সিদ্ধান্ত নেয় স্ত্রী কাজলই। রামুয়া যাতে কোনওভাবে জীবিত না থাকতে পারে, সেই কারণেই ইট দিয়ে থেঁতলে খুনের ছক বাতিল করে কাজল। তাকে সমর্থন করে ছেলে সমীর ও অন্যরা।

দেখে নিন পুনর্নির্মাণের ভিডিও..

 

 

 

 

 

 

You might also like