Latest News

লাইভ: দিদির পার্টি দুর্নীতির পাঠশালা, সিলেবাসও বললেন প্রধানমন্ত্রী

দ্য ওয়াল ব্যুরো: আর ছ’দিন বাদে প্রথম দফার ভোট গ্রহণ। তার আগে আজ শনিবার খড়্গপুরে বিএনআর মাঠে জনসভা করছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তাঁর বক্তৃতার লাইভ হাইলাইটস-

  • আমার সৌভাগ্য যে এতো বিপুল সংখ্যায় আপনারা এখানে জমায়েত হয়েছেন। বিজেপিকে আশীর্ব্বাদ দিতে এসেছেন। বাংলায় এ বার বিজেপি সরকার।
  • কেন বলছি বাংলায় এ বার বিজেপি সরকার। এই বাংলার মাটিতে বিজেপির ১৩০ জন শহিদ হয়েছেন। যাতে বাংলায় গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা হয়। কেন বলছি? আমাদের গর্ব যে দিলীপ ঘোষের মতো একজন সভাপতি রয়েছেন। যিনি সন্ন্যাসীর মতো জীবন কাটিয়ে লড়াই করছেন। তার উপর প্রাণঘাতী হামলা হয়েছে। কিন্তু তাতে তিনি ভয় পাননি।
  • আপনারা কংগ্রেসের কারসাজি দেখেছেন। বামেদের সন্ত্রাসও দেখেছেন। আর তৃণমূল আপনাদের কীভাবে স্বপ্নভঙ্গ করেছে তাও দেখেছেন। বাংলার মানুষকে বলছি, আপনারা সত্তর বছর ধরে অনেককে দেখেছেন। আমাদের পাঁচ বছর সুযোগ দিন। সত্তর বছরের কুশাসন দূর করব। একবার সেবার সুযোগ দিন বাংলায় আসল পরিবর্তন এনে দেখাব। দিনরাত কাজ করব।
  • জঙ্গলমহলে কৃষি সুবিধা বাড়ানো হবে। কৃষিজ পণ্য সংরক্ষণের ব্যবস্থা করা হবে। গ্রামে গ্রামে রাস্তার সম্প্রসারণ হবে। প্রতিটা বাড়িতে শুদ্ধ পানীয় জল পৌঁছবে।
  • আমি ব্রিগেডে বলেছিলাম, বাংলার কাছে বিজেপি ঋণী। বিজেপি জনসংঘ থেকে তৈরি হওয়া একটি পার্টি। জনসংঘের জন্মাদাতা ছিলেন শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়। তাই এখানে যদি সঠিক অর্থে যদি কেউ বাংলার পার্টি থাকে তা হলে তা কেবল বিজেপিই।
  • যেখানে যেখানে বিজেপির সরকার রয়েছে, সেখানে বিজেপি আর কেন্দ্রের সরকার মিলে জনতার সেবা করছেন। সমন্বয় করে চলছেন।
  • গাড়ি কাদায় পড়লে কী হয়। সবাই মিলে গাড়ি থেকে নেমে একদিকে ধাক্কা মারতে হয়তো? দু’দিক থেকে বিভিন্ন দিকে ধাক্কা দিলে গাড়ি উঠবে না। তাই আপনাদের এক দিকে এগিয়ে আসতে হবে।
  • বাংলার নতুন প্রজন্মের ছেলেমেয়েদের কাজের সুযোগ নিয়ে দিদির কোনও চিন্তা নেই। বাংলার গরিব মানুষকে আশ্বস্ত করতে চাইছি, ছেলেমেয়েদের ভবিষ্যৎ নিয়ে আর দিদিকে খেলতে দেব না।
  • দিদি বলছে, খেলা হবে। কিন্তু বাংলা বলছে, খেলা শেষ হবে। উন্নয়ন শুরু হবে। দিদির থেকে বাংলার মানুষ দশ বছরের হিসাব চাইছে। জবাব দেওয়ার বদলে দিদি অত্যাচার করছে। বাংলার লোক বলছে, দিদিকে তো বলেছি উনি শুনছেন না। আমফানের টাকা লুঠ নিয়ে বলো, তো শুনবে না। রেশন লুঠের কথা বলো, তো জেলে ভরে দিচ্ছে। চাকরির কথা জিগ্গেস করো তো পুলিশকে দিয়ে মারছে।
  • ৩৩ লক্ষ কাঁচা বাড়ি বানানোর জন্য দিল্লি থেকে টাকা পাঠানো হয়েছে। আজ পর্যন্ত অনেক বাড়িই বানানো যায়নি। দিদি ভাবলেন মোদী ক্রেডিট পেয়ে যাবেন। আরে দিদি, মোদীকে ক্রেডিট দিতে হবে না, গরিবের পেটে লাথি কেন মারলেন?
  • খড়্গপুর সহ বাংলায় অনেক জনপদে আত্মনির্ভর ভারত-কেন্দ্র গঠনের সম্ভাবনা রয়েছে। তাতেও বাধা দিচ্ছেন দিদি। বাংলায় অন্য রকমের সিঙ্গল উইন্ডো রয়েছে। বাংলায় সিঙ্গল উইন্ডো হল ভাইপো উইন্ডো। পশ্চিমবঙ্গে এই উইন্ডো দিয়ে না ঢুকলে কিছু হবে না।
  • বাংলায় গত দশ বছর ধরে একটাই উদ্যোগ ছিল। মাফিয়া উদ্যোগ। সুবর্ণরেখা নদী থেকে কে বালি চুরি করে, তা এখানকার বাচ্চারাও জানে। বিজেপি ক্ষমতায় এলে এর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা হবে।
  • বাংলায় ভোট দেওয়ার অধিকারও মমতা কেড়ে নিয়েছেন। ২০১৮ সালে পঞ্চায়েত ভোটে দিদি আপনাদের ভোট দেওয়ার অধিকার কেড়েছেন তা সবাই দেখেছেন। এরা গণতন্ত্রের জন্য বিপদ। কিন্তু বাংলার মানুষকে আশ্বস্ত করছি, দিদিকে আর গণতন্ত্রকে খতম করতে দেব না। পুলিশ-প্রশাসনকেও গণতন্ত্রকে বাঁচানোর প্রতিজ্ঞা নিতে হবে।
  • আগের ভোটে তৃণমূল যা করত, এবার তা হবে না। সবাই একসঙ্গে রুখে দাঁড়ান। নির্ভয়ে ভোট দিন।
  • এই ভোট শুধু বিধায়ক, মন্ত্রী বানানোর ভোট নয়, বাংলার ভবিষ্যৎ বদলানোর ভোট। তাই এ বার ভয় নয়, শুধু জয়। পশ্চিমবঙ্গের মানুষের জয়। বিজেপিতে দেওয়া প্রতিটা ভোট বাংলার ভবিষ্যৎকে মজবুত করবে।

 

You might also like