Latest News

তৃণমূলের গোষ্ঠী কোন্দলে উত্তপ্ত গোসাবা, আটক ৯

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ফের প্রকাশ্যে তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব। গোসাবার বেলতলী বাজার এলাকায় সোমবার সন্ধে থেকেই গুলি চলছে। ইট-পাটকেল ছোড়া হচ্ছে দোকান লক্ষ্য করে। গোটা ঘটনায় আতঙ্ক ছড়িয়েছে এলাকায়। ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে বিশাল পুলিশবাহিনী। মঙ্গলবার সকাল অবধি ৯ জনকে আটক করা হয়েছে বলে খবর।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে খবর, গতকাল সন্ধ্যায় যখন শম্ভুনগর গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার তৃণমূলের নেতা বরুণ ওরফে চিত্ত প্রামানিক দলের বৈঠক সেরে বাড়ি ফিরছিলেন, তখন তাঁর ওপর হামলা হয়। পাঠানখালী গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায় তৃণমূলের দলীয় কার্যালয় রয়েছে। সেখানেই বৈঠক সেরে দলের কর্মীদের নিয়ে বাড়ি ফিরছিলেন তৃণমূল নেতা। অভিযোগ, সেই সময় আচমকাই তাঁর উপরে দলেরই নেতা পরিতোষ হালদারের অনুগামীরা হামলা করে। এলোপাথাড়ি গুলিও চলে। পরিস্থিতি সামাল দিতে চিত্ত প্রামাণিকের ব্যক্তিগত দেহরক্ষীও শূন্যে গুলি চালান।

দুই পক্ষের গুলির লড়াই শুরু হয়ে যায়। স্থানীয়রা বলছেন, দুই পক্ষই একে অপরকে লক্ষ্য করে গুলি, ইট-পাটকেল ছুড়তে থাকে। এদিকে, গোলাগুলি শুরু হতেই দোকান বন্ধ করে কোনওরকমে প্রাণে বাঁচেন এলাকাবাসী। এলোপাথাড়ি গুলি গিয়ে লাগে কযেকটি দোকানের শাটারে। তবে ঘটনায় কেউ গুলিবিদ্ধ হননি।

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে গেলে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় ক্যানিংয়ের এসডিপিও। গোসাবা থানার নেতৃত্বে বিরাট পুলিশবাহিনী পৌঁছয় বেলতলীতে। অভিযুক্ত তৃণমূল নেতা পরিতোষ হালদার ও তার সঙ্গীদের খোঁজ চলছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। এলাকায় অশান্তি ছড়ানোয় জড়িত দুই পক্ষেরই ৯ জনকে আটক করা হয়েছে। বরুণ ওরফে চিত্ত প্রামাণিকের ব্যক্তিগত দেহরক্ষীকেও আটক করেছে পুলিশ।

পড়ুন দ্য ওয়ালের সাহিত্য পত্রিকাসুখপাঠ

You might also like