Latest News

নিউটাউনে হোটেলের ঘরে মহিলাকে কুপিয়ে খুন, পুরুষ সঙ্গীর খোঁজে পুলিশ

দ্য ওয়াল ব্যুরো: হোটেলের ঘর থেকে উদ্ধার হল মহিলার রক্তাক্ত দেহ। নৃশংস ভাবে কুপিয়ে খুন করা হয়েছে তাকে। খুনের পর থেকে পলাতক মহিলার সঙ্গে থাকা পুরুষ সঙ্গী। তার খোঁজ শুরু করেছে পুলিশ। এই ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকায়।

ঘটনাটি ঘটেছে নিউটাউনের ডিডি ব্লকের একটি হোটেলে। পুলিশ সূত্রে খবর, মঙ্গলবার দুপুরে সেখানে ঘর ভাড়া নিয়েছিল অমিত ঘোষ ও চুমকি ঘোষ নামের দুই পুরুষ-মহিলা। ঘর ভাড়া নেওয়ার জন্য যে পরিচয় পত্র তারা দিয়েছিল তাতে মেদিনীপুরের ঠিকানা ছিল। হোটেলের ২০১ নম্বর রুমে তারা ছিল বলে জানা গিয়েছে।

পুলিশ সূত্রে খবর, দুপুরে খাবার অর্ডার দেওয়ার পরে অমিত জানায় সন্ধ্যা ৭টা নাগাদ হোটেল ছেড়ে দেবে তারা। কিন্তু রাত ৮টা বাজার পরেও তারা না বের হওয়ায় হোটেলের এক কর্মী তাদের ডাকতে যায়। বারবার বেল বাজানোর পরেও কেউ দরজা খোলেনি। অথচ ভিতরে টিভির শব্দ শোনা যাচ্ছিল বলেই জানিয়েছে ওই কর্মী। তারপর সন্দেহ হওয়ায় ডুপ্লিকেট চাবি দিয়ে কর্মীরা দরজা খুলে দেখে ভেতরে চাদরে ঢাকা একটি দেহ পড়ে। চারদিক রক্তে ভেসে যাচ্ছে। তখনই খবর দেওয়া হয় টেকনোসিটি থানায়।

ঘটনাস্থলে গিয়ে পুলিশ চাদর সরিয়ে দেখে চুমকির রক্তাক্ত উলঙ্গ দেহ পড়ে রয়েছে। তার সারা শরীরে ও মাথায় একাধিক আঘাতের চিহ্ন। পাশে পড়ে রয়েছে ভাঙা মদের বোতল। সেই বোতল দিয়েই আঘাত করা হয়েছে বলে প্রাথমিক অনুমান।

পুলিশ সূত্রে খবর, হোটেলের সিসিটিভি ফুটেজে দেখা গিয়েছে বিকেল ৪টে নাগাদ হোটেল ছেড়ে বেরিয়ে গিয়েছে অমিত। প্রাথমিক অনুমান, চুমকিকে খুন করার পরেই গা ঢাকা দিয়েছে সে। মহিলার দেহ উলঙ্গ অবস্থায় থাকায় তাকে খুন করার আগে ধর্ষণ করা হতে পারে বলেও অনুমান। দেহ ময়নাতদন্তে পাঠানো হয়েছে। রিপোর্ট হাতে পেলেই সবটা জানা যাবে।

কী কারণে মহিলাকে খুন করা হল তা এখনও নিশ্চিত নয়। অমিত ও চুমকির কী সম্পর্ক, নিউটাউনের ওই হোটেলে তারা কেন এসেছিল, সে ব্যাপারেও কিছু জানা যায়নি। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। সিসিটিভি ফুটেজ থেকে অমিতকে চিহ্নিত করে চলছে তল্লাশি। এভাবে হোটেলে খুনের ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকায়।

You might also like