Latest News

অকাল-শ্রাবণে ভিজল রাজ্য, আজ দিনভর বৃষ্টির পূর্বাভাস উত্তর থেকে দক্ষিণে

দ্য ওয়াল ব্যুরো: একের পর এক পশ্চিমী ঝঞ্ঝা। তার জেরেই পিছু হটছে শীত। পশ্চিমী ঝঞ্ঝার সঙ্গে পুবালি হাওয়ার সংঘাতে আবারও ঘনিয়েছে বৃষ্টির মেঘ। বুধবার রাতভর বৃষ্টিতে ভিজেছে দক্ষিণের জেলাগুলি। আজ বৃহস্পতিবারও বৃষ্টির সম্ভাবনা আছে রাজ্যে। আলিপুর হাওয়া অফিস জানিয়েছে, পশ্চিমী ঝঞ্ঝার সঙ্গে পুবালি হাওয়ার জোর টক্কর লেগেছে। এর প্রভাবেই শীতের মধ্য়েই ফের ঝেঁপে বৃষ্টি নামবে উত্তর থেকে দক্ষিণে। পাহাড়ি জেলাগুলিতেও হাল্কা থেকে মাঝারি বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছে হাওয়া অফিস। তুষারপাতের সম্ভাবনাও আছে পাহাড়ে।

আলিপুর আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে, আগামী কয়েকদিন ধীরে ধীরে বাড়বে তাপমাত্রা। ক্রমশ তা স্বাভাবিকের কাছাকাছি পৌঁছবে। তবে বজায় থাকবে শীতের আমেজ। কলকাতা এবং সংলগ্ন বিভিন্ন জেলায় রাতের তাপমাত্রা তুলনায় কম ছিল। গত রবিবার কনকনে হিমেল হাওয়ায় শীতের আমেজ ভালভাবেই টের পেয়েছে শহরবাসী। তবে অকাল-বর্ষণের পরে শীত দাপটের সঙ্গে ফিরবে কিনা সে নিয়ে সংশয় থেকেই যাচ্ছে। হাওয়া অফিস জানাচ্ছে, ভোরের দিকে হাল্কা কুয়াশা থাকবে। রাতের তাপমাত্রা নামবে। আকাশ প্রধানত পরিষ্কার থাকবে।

উত্তর-পশ্চিম ভারতে আরও একটি পশ্চিমী ঝঞ্ঝা ঢুকেছে। এটি ক্রমশ সরে আসছে পূর্ব দিকে। ফলে পুবালি হাওয়ার সঙ্গে সংঘাত হচ্ছে। এর জেরেই বৃষ্টি হচ্ছে বঙ্গে।  বিশেষত, পশ্চিমের জেলাগুলিতে বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টির সম্ভাবনা আছে। বাঁকুড়া, পশ্চিম বর্ধমান ও বীরভূমে বৃহস্পতিবার থেকেই বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। দক্ষিণের জেলাগুলিতেও ঝেঁপে বৃষ্টি নামবে আজ থেকে।

উত্তরবঙ্গে দার্জিলিং, কালিম্পঙে হাল্কা বৃষ্টি হবে আগামী চার থেকে পাঁচ দিন। তুষারপাতের সম্ভাবনা আছে পাহাড়ে। বুধ-বৃহস্পতিবার নাগাদ তুষারপাত বা গ্রাউন্ড ফ্রস্ট হতে পারে সান্দাকফু, চটকপুর সহ দার্জিলিঙের উঁচু এলাকায়। বৃহস্পতিবার বৃষ্টি বাড়তে পারে উত্তরবঙ্গের সব জেলাতেই।

পশ্চিমী ঝঞ্ঝার প্রভাবে বৃষ্টির সম্ভাবনা উত্তর-পশ্চিম ভারতেও। তুষারপাত হতে পারে জম্মু-কাশ্মীর, লাদাখ মুজাফফরাবাদ এবং উত্তরাখণ্ডে। বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টির সম্ভাবনা পাঞ্জাব, হরিয়ানা, চন্ডীগড়, দিল্লি, উত্তরপ্রদেশ ও রাজস্থানে। বিহার, ঝাড়খণ্ড ও ওড়িশাতেও বৃষ্টির সম্ভাবনার কথা বলেছে মৌসম ভবন।

You might also like