Latest News

হাওড়ায় উদ্ধার বিপুল অস্ত্র ও বিস্ফোরক, এসটিএফের হাতে গ্রেফতার ২

দ্য ওয়াল ব্যুরো: সামনেই রাজ্য বিধানসভা নির্বাচন। তার আগেই ফের একবার উদ্ধার হল প্রচুর পরিমাণ বিস্ফোরক ও অস্ত্র। এই অস্ত্র মজুত রাখার অপরাধে দু’জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এই ঘটনায় উত্তেজনা ছড়িয়েছে এলাকায়। অস্ত্র মজুত করে সেখান থেকে অন্য জায়গায় পাচার করা হত বলে পুলিশ সূত্রে খবর।

এই অস্ত্র ও বিস্ফোরক উদ্ধার হয়েছে হাওড়া জেলার গোলাবাড়ি এলাকায়। রাজ্য পুলিশের এসটিএফ শুক্রবার রাতে হানা দেয় ওই এলাকার একটি বাড়িতে। সেখান থেকেই এগুলি উদ্ধার হয়। পুলিশ জানিয়েছে, গোপন সূত্রে তারা খবর পায় বেশ কিছুদিন ধরে গোলাবাড়ি এলাকার একটি বাড়িতে অস্ত্রশস্ত্র ও বিস্ফোরক মজুত করা হচ্ছে। সেই খবর পেয়েই গতকাল রাতে সেখানে হানা দেয় রাজ্য পুলিশের এসটিএফ।

জানা গিয়েছে, ওই বাড়ি থেকে চারটি সেভেন এমএম পিস্তল, আটটি ম্যাগাজিন, প্রচুর পরিমাণে কার্তুজ ও ১৫ কেজি বিস্ফোরক উদ্ধার হয়েছে। এছাড়া বিস্ফোরক তৈরির সরঞ্জামও উদ্ধার হয়েছে সেখানে। বিস্ফোরক মজুতের অপরাধে এখনও পর্যন্ত দু’জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তাদের নাম আবদুল কাদির ও গোলাম ই ওয়ারিশ। পুলিশ সূত্রে খবর, গোলাম উত্তর ২৪ পরগনা জেলার জগদ্দলের বাসিন্দা। অন্যদিকে কাদির হুগলির ভদ্রেশ্বর এলাকার চাঁপদানির বাসিন্দা।

পুলিশ জানিয়েছে, ধৃত দু’জনকেই শনিবার আদালতে তোলা হবে। তাদের নিজেদের হেফাজতে নেওয়ার আবেদন জানাবে এসটিএফ। কারণ এই অস্ত্র কারখানার পিছনে অনেক বড় চক্র থাকতে পারে বলেই পুলিশের অনুমান। তাছাড়া কোথা থেকে এইসব অস্ত্র মজুত করা হচ্ছিল ও তা কোথায় বিক্রি করা হচ্ছিল সেই ব্যাপারেও ধৃতদের জেরা করতে চায় পুলিশ।

এই চক্রের সঙ্গে ভিন রাজ্য কিংবা বাংলাদেশের কোনও যোগ রয়েছে কিনা তাও খতিয়ে দেখতে চাইছে পুলিশ। কিছুদিন আগেই হাওড়ায় এক প্রোমোটার খুন হন। সেই খুনের ঘটনাতেও ধৃতদের কেউ যুক্ত ছিল কিনা, কিংবা সেখানে ব্যবহৃত অস্ত্র এখান থেকে নেওয়া হয়েছিল কিনা সেটাও খতিয়ে দেখছেন তদন্তকারী অফিসাররা। এভাবে অস্ত্র উদ্ধারের ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকায়।

You might also like