Latest News

কাটোয়ায় অনলাইনে পালিত কাজী নজরুল ইসলামের জন্মদিন

শহরের দু’টি জনপ্রিয় ফেসবুক গ্রুপ ‘কাটোয়ার কৃষ্টি’ ও ‘আমার শহর কাটোয়া’র মাধ্যমে সোমবার সকাল ৮টা থেকে বেলা ১০টা পর্যন্ত নজরুলের বিভিন্ন গান ও কবিতায় সাজানো অনুষ্ঠানের বিশেষ ফেসবুক লাইভ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

দ্য ওয়াল ব্যুরো: সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে বিদ্রোহী কবি কাজী নজরুল ইসলামের জন্মদিন পালন করলেন কাটোয়ার বিশিষ্টজনেরা। সোশ্যাল মিডিয়ায় লোকে দেখলেন সেই অনুষ্ঠানের সরাসরি সম্প্রচার।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ আটকাতে দফায় দফায় চলছে লকডাউন। তার মধ্যেও জীবন থেমে নেই। থেমে নেই অনুষ্ঠানও। বদলেছে শুধু মাধ্যম। আজ সোমবার ১২ জ্যৈষ্ঠ বিদ্রোহী কবি কাজী নজরুলের জন্মদিন। অনলাইনে সোশ্যাল মিডিয়ার সাহায্যে জন্মদিন পালন করে তাঁকে শ্রদ্ধা জানালেন কাটোয়ার সঙ্গীতশিল্পী ও নজরুল অনুরাগীরা। শহরের দু’টি জনপ্রিয় ফেসবুক গ্রুপ ‘কাটোয়ার কৃষ্টি’ ও ‘আমার শহর কাটোয়া’র মাধ্যমে সোমবার সকাল ৮টা থেকে বেলা ১০টা পর্যন্ত নজরুলের বিভিন্ন গান ও কবিতায় সাজানো অনুষ্ঠানের বিশেষ ফেসবুক লাইভ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে লকডাউনের মধ্যে এই অনুষ্ঠান হয়। শিল্পী প্রসূন শর্মা সামন্ত বলেন, “করোনার প্রভাবে লকডাউনের জেরে সরকারি বিধিনিষেধ অনুযায়ী বর্তমান পরিস্থিতিতে প্রতি বছরের মতো হল বুক করে এবং বহু মানুষের উপস্থিতিতে অনুষ্ঠান করে কবির প্রতি শ্রদ্ধা জানানো সম্ভব নয়। তাই ঘরে বসে জনা কয়েক শিল্পীর অনুষ্ঠান ফেসবুক গ্রুপের সাহায্যে শুধুমাত্র কাটোয়া নয়, শহরের বাইরেও গৃহবন্দি বহু মানুষের কাছে আমরা পৌঁছে দিতে চেয়েছি।”

কাটোয়ার শিশু চিকিৎসক অরূপ গুহ বলেন, “সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে এই ধরনের একটি অনুষ্ঠান একসঙ্গে বহু মানুষের কাছে পৌঁছে দেওয়ার এই উদ্যোগ প্রশংসার যোগ্য। এই অনুষ্ঠানে সহযোগিতা করার জন্য আমি ‘কাটোয়ার কৃষ্টি’ ও ‘আমার শহর কাটোয়া’ ফেসবুক গ্রুপের অ্যাডমিনদের ধন্যবাদ জানাচ্ছি। সাহিত্যিক ও শিল্পানুরাগী তুষার পণ্ডিত বলেন, “সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে এই উদ্যোগ প্রশংসনীয়। বর্তমান পরিস্থিতির মধ্যে এই ধরনের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের সাক্ষী হতে পেরে আমরা খুবই আনন্দিত।”

এই দুই ফেসবুক গ্রুপের অ্যাডমিনরা জানান খুব অল্প সময়ে বহু মানুষের কাছে তথ্য পৌঁছে দেওয়ার জন্য সোশ্যাল মিডিয়াই ভরসা। এই গ্রুপের মাধ্যমে কবির প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে পেরে এবং একই সঙ্গে গৃহবন্দী মানুষের কাছে অনুষ্ঠান পৌঁছে দিতে পেরে তাঁরা খুশি।

You might also like