Latest News

নদীতে ভেসে যাওয়া গাড়ির জন্যেও ক্ষতিপূরণ, বিমা সংস্থাকে নির্দেশ জলপাইগুড়ি ক্রেতা আদালতের

ঘটনার সত্যতা নিয়ে পুলিশ রিপোর্টের পরেও মেলেনি ক্ষতিপূরণ

দ্য ওয়াল ব্যুরো: প্রাকৃতিক দুর্যোগে গাড়ি হারিয়ে গেলেও বিমা কোম্পানিকে ক্ষতিপূরণ দিতে হবে বলে রায় দিল জলপাইগুড়ি ক্রেতা সুরক্ষা আদালত। ২০১৪ সালে কালিম্পংয়ের পথে আচমকা বিপুল জল এসে ভাসিয়ে নিয়ে গিয়েছিল চারচাকার গাড়ি-সমেত আরোহীকে। আরোহী কোনওক্রমে প্রাণে বেঁচে গেলেও গাড়িটি ভেসে যায়। গাড়ির আরোহী তথা মালিক  ক্ষতিপূরণ দাবি করলে বিমা সংস্থা সেই আবেদন খারিজ করে দেয়। তখন তিনি জলপাইগুড়ি ক্রেতা সুরক্ষা আদালতের দ্বারস্থ হন।

কালিম্পং জেলার বাসিন্দা কুমার ছেত্রী ২০১৪ সালের ১৬ জুলাই নিজের মারুতি ইকো গাড়ি চালিয়ে বাড়ি ফিরছিলেন। তখন প্রচণ্ড ঝড়-বৃষ্টি হচ্ছিল। পথে কালিম্পং জেলার রম্ভি ঝোরা থেকে প্রচুর পরিমাণে জল আচমকাই নেমে এসে গাড়ি সমেত কুমার ছেত্রীকে তিস্তা নদীতে ভাসিয়ে নিয়ে যায়।

নদীতে পড়ে কোনও রকমে প্রাণে বেঁচে বাড়ি ফেরেন কুমার ছেত্রী কিন্তু গাড়ির হদিশ না পাওয়ায় পরের দিন তিনি কালিম্পং জেলার রিয়াং ফাঁড়িতে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। পুলিশ তদন্ত শুরু করে এবং ‘ঘটনা সত্য’ – এই মর্মে রিপোর্ট দেয়।

এরপর তিনি যে বিমা সংস্থায় ( চোলা মণ্ডলম এমএস জেনারেল ইন্সিওরেন্স কোম্পানি লিমিটেড) তাঁর গাড়ির বিমা করানো ছিল তার কাছে ক্ষতিপূরণ দাবি করেন। প্রাকৃতিক কারণে তাঁর গাড়ি হারিয়ে গেছে বলে বিমার টাকা দেওয়া হবে না – একথা ওই কোম্পানি তাঁকে জানিয়ে দেয় বলে অভিযোগ।

২০১৮ সালের ২৮ ডিসেম্বর জলপাইগুড়ি ক্রেতা সুরক্ষা আদালতে মামলা দায়ের করেন কুমার ছেত্রী। জলপাইগুড়ি ক্রেতা সুরক্ষা আদালতের বিচারক সৈয়দ নুরুল হোসেন, অশোককান্তি সরকার ও অরুন্ধতী রায় এই মামলায় গাড়ির মালিককে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। তিন বিচারকের রায় অনুযায়ী গাড়ির দাম হিসেবে বিমা সংস্থাকে ২,২৯,৬৩১ টাকা দিতে হবে গাড়ির মালিককে। এজন্য তাঁরা বিমা সংস্থাকে তিরিশ দিন সময় দিয়েছেন। নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে বিমা সংস্থা যদি ওই টাকা না দেয় তা হলে ৩০ দিন পর থেকে প্রতিদিন পাঁচশো টাকা হিসাবে জরিমানা দিতে হবে বলেও জানিয়েছেন বিচারক অশোককান্তি সরকার।

এই রায় শোনার পরে বিমা কোম্পানির আইনজীবী অভিজিৎ রায়চৌধুরী টেলিফোনে জানান, “রায়ের কথা শুনেছি এবং বিষয়টি কোম্পানিতে জানিয়েছি। কোম্পানি যা সিদ্ধান্ত নেওয়ার নেবে।” এই রায়ের পরে উচ্চ আদালতে যেতে পারে বিমা সংস্থাটি, আবার ক্ষতিপূরণ দিয়ে মামলার নিষ্পত্তিও  করে ফেলতে পারে।

You might also like