Latest News

চুঁচুড়ায় বাসের মধ্যে চালকের দেহ উদ্ধার, গলায় ফাঁস, জামায় রক্ত, খুনের অভিযোগ মেয়ের 

দ্য ওয়াল ব্যুরো, হুগলি: বাসের মধ্যে থেকে উদ্ধার হল চালকের মৃতদেহ। সোমবার সকালে এই ঘটনায় তীব্র চাঞ্চল্য ছড়ায় হুগলির জেলা সদর চুঁচুড়ায়। মৃতের নাম সেখ মহরম আলি। তাঁর বয়স ৪৪ বছর। জানা গিয়েছে হুগলি-চুঁচুড়া পুরসভার ১৮ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা ছিলেন তিনি।

যে ভাবে দেহ উদ্ধার হয়েছে তাতে অনেকেই সন্দেহ করছেন মহরম আলিকে খুন করা হয়েছে। বাসের সিটে বসা অবস্থায় পাওয়া যায় চালকের দেহ। গলায় একটা দড়ি দিয়ে ফাঁস লাগানো ছিল। বাস চালকের জামায় দেখা গিয়েছে চাপ চাপ রক্তের দাগ। সব দেখে অনেকেই বলছেন, খুন করা হয়েছে এই বাস চালককে। মৃতের মেয়েরও দাবি, তাঁর বাবাকে খুন করা হয়েছে।

২ নম্বর রুটের একটি বাস থেকে উদ্ধার হয় দেহ। এমনিতে আগের তুলনায় চুঁচুড়া-বাগখাল রুটে বাসের সংখ্যা অনেক কমে গিয়েছে। হাতে গোণা কয়েকটি বাস চলে এই রুটে। তার মধ্যে যে বাসটি থেকে চালকের দেহ উদ্ধার হয়েছে সেটি এখন আবার পুলিশের আন্ডারে ভাড়া খাটে। বাসটির সামনে পুলিশের বোর্ডও ঝোলানো রয়েছে।

দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠিয়েছে পুলিশ। চুঁচুড়া থানার এক পুলিশ আধিকারিকের বক্তব্য, ময়নাতদন্তের রিপোর্ট আসার পরেই বোঝা যাবে কী কারণে মৃত্যু হয়েছে এই ব্যক্তির।

তবে অন্য বাসের এক চালক বলেন, “মহরম আলি নিয়মিত নেশা করতেন। হতে পারে মদ খাওয়া নিয়ে কারও সঙ্গে ঝামেলার কারণেই এই খুনের ঘটনা ঘটেছে।” স্থানীয় এক যুবকের কথায়, “মহরম আলি দীর্ঘ দিন ধরে বাস চালান। বিভিন্ন রুটের বাসে চালক হিসেবে কাজ করতেন তিনি। ইদানিং পুলিশের বাস চালাচ্ছিলেন।“ চুঁচুড়া আখন বাজার, ঘড়ির মোড় এলাকায় পরিচিত মুখ ছিলেন সেখ মহরম আলি।

You might also like