Latest News

ছিনতাইয়ের নাটক, আলিপুরদুয়ারে আট মাসের অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে কুপিয়ে খুন করেছে স্বামীই

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ছিনতাইয়ে বাধা দেওয়ায় আলিপুরদুয়ারে এক দম্পতির ওপরে হামলা চালায় আততায়ীরা, এমন খবরই ছড়িয়েছিল। আট মাসের অন্তঃসত্ত্বা মহিলাকে গলায় ছুরির কোপ বসিয়ে খুন করা হয়। মর্মান্তিক সেই ঘটনার তদন্তে নেমে উঠে আসে চাঞ্চল্যকর তথ্য। পুলিশ জানতে পারে, ছিনতাইয়ের অভিযোগ সাজানো। আসলে প্রেমিকার সঙ্গে মিলে স্ত্রীকে খুনের পরিকল্পনা করে স্বামীই।

আলিপুরদুয়ার খুনের কিনারা হল মাত্র পাঁচ দিনের মাথায়। কোচবিহারের ঘোকসাডাঙ্গা এলাকার ফেসাবাড়ির বাসিন্দা মজিদা বেগম ও তাঁর স্বামী এক্রামূল হককে রক্তাক্ত অবস্থায় গাড়ির ভেতর থেকে উদ্ধার করা হয়। রাত ১০টা নাগাদ হাসিমারা জাতীয় সড়কে তাঁদের গাড়িটি রাস্তার ওপর পড়ে থাকতে দেখা যায়। ভেতরে রক্তাক্ত ছিন্নভিন্ন মজিদা ও তাঁর স্বামী। এক্রামূলের পিঠেও ছুরির আঘাত ছিল।

পুলিশ জানিয়েছে, এক্রামূল তার বয়ানে বলেছিল, দুজনেই ছিনতাইকারীদের বাধা দেওয়ার চেষ্টা করেন।  তাতেই পরিস্থিতি বিগড়ে যায়।  চুরি, ভোজালি বের করে মজিদা ও তাঁর স্বামীর ওপর ঝাঁপিয়ে পড়ে দুষ্কৃতীরা।  মজিদার গলায় পর পর ছুরির কোপ বসিয়ে দেয়। কিন্তু পর পর জেরা করে এক্রামূলের কথায় অসঙ্গতি ধরা পড়ে। তখনই সন্দেহ হয় পুলিশের।

তদন্তে নেমে জানা যায়, অন্য এক মহিলার সঙ্গে সম্পর্ক ছিল এক্রামূলের। সেই প্রেমিকার সঙ্গে ষড়যন্ত্র করেই গোটা ঘটনা সাজিয়েছিল দুজনে। মাঝরাস্তায় ছিনতাইয়ের অভিযোগ ভুয়ো। প্রেমিকাকে গাড়িতে তুলে স্ত্রীকে খুন করে এক্রামূল। তারপর নিজেকেও আঘাত করে। এরপর জেরায় আততায়ীদের গল্প ফাঁদে। কিন্তু সবটাই ফাঁস হয়ে গেছে, এক্রামূল ও তার প্রেমিকাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

পড়ুন দ্য ওয়ালের সাহিত্য পত্রিকাসুখপাঠ

You might also like