Latest News

BJP Bangla Bandh: বিজেপির বনধে জনজীবন স্বাভাবিক, রাস্তা, রেল অবরোধের বিক্ষিপ্ত চেষ্টা আটকে দিল পুলিশ

বিজেপির ডাকা বাংলা বনধে (BJP Bangla Bandh) মোটের ওপর জনজীবন স্বাভাবিক। তেমন কোনও বিশাল প্রভাব এখনও অবধি দেখা যায়নি। তবে কিছু বিক্ষিপ্ত অশান্তির (Agitation) খবর এসেছে কয়েকটি জেলা থেকে।

শিয়ালদহ রানাঘাট শাখার ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে,  তবে যাত্রী সংখ্যা কম। ভোর থেকে এখনও পর্যন্ত রাজ্য বিজেপি দলের কোনও নেতা কর্মীকে রাস্তায় দেখা যায়নি।

হাওড়া ব্রিজে ওঠার মুখে সকাল ৮টা ৪০ নাগাদ বিজেপি (BJP) কর্মীরা পথ অবরোধ করেন।  তাঁরা রাস্তায় বসে পড়েন। গোলাবাড়ি থানার পুলিশ গিয়ে অবরোধকারীদের সরিয়ে দেয়। হাওড়া ব্রিজ ও হাওড়া স্টেশন সংলগ্ন এলাকায় তেমন কোনও বড়রকম অশান্তি আর দেখা যায়নি।

হুগলি থেকে কিছু বিক্ষিপ্ত ঝামেলার খবর মিলেছে। জানা গেছে, হুগলি স্টেশনে রেল অবরোধ করছেন বিজেপি কর্মী সমর্থকরা। ডাউন বর্ধমান লোকাল বেশ কিছুক্ষণ আটকে ছিল হুগলি স্টেশনে।  ফলে ভোগান্তিতে পড়তে হয় নিত্যযাত্রীদের।

আরও পড়ুন: Bangla Bandh: সব খোলা থাকবে, সরকারি কর্মীরা না এলে কাটা যাবে বেতন! বিজেপির বাংলা বনধে বিবৃতি নবান্নর

বনধ ঘিরে সোমবার সকাল থেকেই উত্তেজনা ছড়িয়েছে বালুরঘাটে। সূত্রের খবর, বিজেপি কর্মী-সমর্থকরা রাস্তায় বসে অবরোধ করেন। বিক্ষোভ তুলতে গেলে পুলিশের সঙ্গে হাতাহাতিও হয়।

নন্দীগ্রামে বিজেপির পথ অবরোধকে ঘিরে ধুন্ধুমার বেঁধে যায়। পুলিশের সঙ্গে বচসায় জড়িয়ে পড়েন বিজেপির কর্মী-সমর্থকরা। ঠেলাঠেলি, ধাক্কাধাক্কি হয় বলে খবর।

বর্ধমানে বনধের তেমন কোনও প্রভাব দেখা যায়নি। বনধের আংশিক প্রভাব লক্ষ্য করা গেছে কোচবিহারে। সকাল থেকে শহরের রাস্তায় সরকারি বাস দেখা গেলেও বেসরকারি বাস দেখা যায়নি। তাছাড়া টোটো অটোও রাস্তায় নেমেছে। কোচবিহারে ভবানীগঞ্জ এলাকায় রাস্তায় নেমে সরকারি বাস আটকাতে দেখা যায় বিজেপির দক্ষিণ বিধানসভার বিধায়ক নিখিল রঞ্জন দে-কে।

You might also like