Latest News

নদিয়ায় বৃদ্ধা মাকে কোপাল ছেলে! সম্পত্তি নিয়ে বিবাদে নৃশংস কাণ্ড

দ্য ওয়াল ব্যুরো: রাস্তায় পড়ে কাতরাচ্ছেন এক বৃদ্ধা। রক্তে ভেসে যাচ্ছে তাঁর ঘাড়, হাত। লোকজন জড়ো হয়ে গিয়েছে, জিজ্ঞেস করছে কী হয়েছে। বৃদ্ধা কেবল একটাই বাক্য বলছেন, “আমার ছেলে মেরেছে!”

আজ, বৃহস্পতিবার সকালে এমনই দৃশ্যের সাক্ষী হল নদিয়ার শান্তিপুরে লেবুতলা এলাকা। জানা গেছে, ছেলের হাতে আক্রান্ত হয়ে বৃহস্পতিবার সকালে রাস্তায় পড়েছিলেন আন্নাবালা হালদার নামের ওই বৃদ্ধা। বিষয় সম্পত্তি নিয়ে বিবাদের কারণেই এই পরিস্থিতি হয়েছে বলে স্থানীয় সূত্রের খবর।এলাকাবাসীরা জানাচ্ছেন, শান্তিপুরের আন্নাবালা হালদারের পরিবারে বিষয়সম্পত্তি নিয়ে বেশ কিছুদিন ধরেই বিবাদ চলছিল। আজ, বৃহস্পতিবার সকালে অন্যান্য দিনের মতোই কাজে বেরিয়েছিলেন এই বৃদ্ধা। অভিযোগ, সেই সময় হঠাৎই পিছন থেকে এসে তাঁর বড় ছেলে জীবন হালদার তাঁর ঘাড়ে ও হাতে কোপ মারে ধারালো অস্ত্র দিয়ে। সঙ্গে সঙ্গে রাস্তার উপর লুটিয়ে পড়েন ওই বৃদ্ধা।

এর পরে বেশ কিছুক্ষণ আহত অবস্থায় রাস্তাতেই পড়েছিলেন ওই বৃদ্ধা। তার পরে স্থানীয়রা তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার ব্যবস্থা করে। সেইসঙ্গে বাড়িতে খবর দেয়। ছুটে আসে বৃদ্ধার ছোট ছেলে রাজু হালদার। সাত সকালের এই ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে শান্তিপুরে। গুরুতর জখম অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি আছেন বৃদ্ধা আন্নাবালা। এই ঘটনার পরই পালিয়ে গিয়েছে জীবন হালদার। পুলিশ তাঁর খোঁজ শুরু করেছে। স্থানীয়দের দাবি, আহত আন্নাবালার বড় ছেলে জীবন মানসিকভাবে অসুস্থ।

You might also like