Latest News

মণিপুরে ভয়াল ধসে মৃত জওয়ানদের ৯ জন দার্জিলিঙের, টুইটারে শোকবার্তা মুখ্যমন্ত্রীর

দ্য ওয়াল ব্যুরো: একের পর এক মৃতদেহ উদ্ধার হচ্ছে। নদীতে ভেসে যাওয়া জওয়ানদের নিষ্প্রাণ দেহ টেনে তুলছেন বিপর্যয় মোকাবিলা দলের উদ্ধারকারীরা (Manipur Landslide)। মণিপুরের ননে জেলায় ভয়াবহ ধসে এখনও অবধি ১৬ জনের দেহ উদ্ধার হয়েছে। মৃতদের মধ্যে রয়েছেন সেনা জওয়ানেরাও। খোঁজ মিলছে না অনেকের। দুর্ঘটনায় শোকস্তব্ধ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এদিন টুইট করে জানিয়েছেন, নিহত জওয়ানদের মধ্যে ন’জন দার্জিলিঙের।

বৃহস্পতিবার টুপুল ইয়ার্ড রেলওয়ে নির্মাণস্থলের কাছে ১০৭ টেরিটোরিয়াল আর্মি ক্যাম্পে ধস (Manipur Landslide) নামে। এখনও পর্যন্ত ১৬ জনের দেহ উদ্ধার করা হয়েছে। মৃতদের মধ্যে রয়েছেন দার্জিলিং( ১০৭ নম্বর টেরিটোরিয়াল আর্মি ইউনিট)-এর ৯ জওয়ান। তাঁরা দার্জিলিঙের বাসিন্দা বলেই জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। টুইট বার্তায় তিনি বলেছেন, “আমি মর্মাহত এটা শুনে যে মৃত জওয়ানদের ন’জন আমাদের রাজ্যের দার্জিলিঙের বাসিন্দা। মৃতদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানাচ্ছি।”

এখনও সাত জন জওয়ান-সহ কমপক্ষে ৫৫ জনের খোঁজ পাওয়া যাচ্ছে না। ইজাই নদীর কাছে ধ্বংসস্তূপে তাঁরা চাপা পড়েছেন বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। ভারতীয় সেনা, অসম রাইফেলস, টেরিটোরিয়াল আর্মির সঙ্গেই উদ্ধারকাজে হাত লাগিয়েছে রাজ্য ও জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনী। ধ্বংসস্তূপের নীচে আরও কয়েকজনের আটকে থাকার আশঙ্কা রয়েছে। সেনা বাহিনীর এক কর্মকর্তার মতে, আবহাওয়াও খারাপ হওয়ার কারণে উদ্ধারকাজ ব্যাহত হচ্ছে। তবে আবহাওয়া ঠিক হলে ফের উদ্ধারকাজ শুরু হবে বলে জানান তিনি।

টেরিটোরিয়াল আর্মির ১৩ জন জওয়ান ও পাঁচ বাসিন্দাকে উদ্ধার করা হয়েছে (Manipur Landslide)। মৃতদের পরিবারকে পাঁচ লক্ষ টাকা করে আর্থিক সাহায্য দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী এন বীরেন সিং। আহতদের পরিবার পিছু দেওয়া হবে ৫০ হাজার টাকা করে।

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ বৃহস্পতিবারই টুইটে জানান, মণিপুরের টুপুল রেলস্টেশনের কাছে ধসের ব্যাপারে মুখ্যমন্ত্রী এন বীরেন সিং এবং কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণবের সঙ্গে কথা বলেছেন তিনি। তৎপরতার সঙ্গে উদ্ধারকাজ চলছে। ঘটনায় শোকপ্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীও।

You might also like